নয়াদিল্লি: রিজার্ভ ব্যাংকের অতিরিক্ত সঞ্চয় কেন্দ্রের কাছে পাঠান যাবে কি না তা ঠিক করতে গঠিত বিমল জালান কমিটি খুব শীঘ্রই আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাসের কাছে রিপোর্ট দেবে ৷ আর ওই রিপোর্টে থাকা সুপারিশের ভিত্তিতে রিজার্ভ ব্যাংক সিদ্ধান্ত নেবে সঞ্চয়ের কতটা কী ভাবে সরকারে কোষাগারে পাঠান হবে৷

বুধবারই এই কমিটি শেষবারের মতো বৈঠক করে এবং সূত্রের খবর রিপোর্ট প্রায় তৈরি শুধুমাত্র শেষ মাজাখসার করে নেওয়া হবে৷তিন থেকে পাঁচ বছর সময়ে ওই অতিরিক্ত সঞ্চয়ের অর্থ কেন্দ্রকে দেওয়া হবে ৷ কমিটি সদস্যদের মধ্যে মতভেদ রয়েছে বলেই জানা গিয়েছে ৷ এই প্যালেনের অন্যতম সদস্য অর্থসচিব সুভাষ গর্গের সঙ্গে মতভেদ হয়েছে এবং সে কথা ওই রিপোর্টে উল্লেখ থাকছে বলেই মনে করা হচ্ছে৷

রিজার্ভ ব্যাংকের সঞ্চয়ের কতটা সরকারের কাছে পাঠান যাবে তা নিয়ে মতভেদ বৃদ্ধি পায় যখন সরকারি আধিকারিকদের যুক্তি হল দুনিয়া জুড়ে মোট সম্পদের ১৪ শতাংশ সঞ্চিত থাকা উচিত যেখানে রিজার্ভ ব্যাংকের কাছে রয়েছে ২৭ শতাংশ৷ এই ইস্যুতে গত বছরেই সরকার এবং রিজার্ভ ব্যাংকের মধ্যে বিরোধ চরমে ওঠে৷ এই বিতর্ক থামাতে গত ডিসম্বরে রিজার্ভ ব্যাংকের প্রাক্তন গভর্নর বিমল জালানের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়েছিল৷