স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: কুয়াশার কারণে ট্রেন বাতিলের পেছনের রাজনীতির গন্ধ খুঁজে পেল তৃণমূল নেতৃত্ব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ব্রিগেড সমাবেশে যাতে উত্তরবঙ্গের মানুষ অংশ না নিতে পারেন তার জন্যই প্রভাব খাটিয়ে ট্রেন বাতিল করানো হয়েছে বলে মনে করছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব৷

রেল মন্ত্রককে দিয়ে কুয়াশার বাহানায় এই ট্রেন বাতিল করা হয়েছে বলে অভিযোগ তাঁদের৷ ব্রিগেড সমাবেশের সেমিফাইনাল সভায় বালুরঘাটে এমনই অভিযোগ করলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব মিত্র।

বালুরঘাটের থানা মোড়ে এদিন ব্রিগেড সমাবেশের প্রস্তুতি সভা আয়োজিত হয়। সভায় বিপ্লব মিত্র ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যয় পরিষদীয় মন্ত্রী তাপস রায় ও সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। এদিন বিপ্লব মিত্র বলেন ১৯ জানুয়ারির ব্রিগেড সভায় এই জেলা থেকে তাঁরা একলক্ষেরও বেশি কর্মী সমর্থকের উপস্থিতি উপহার দেবেন মুখ্যমন্ত্রীকে।

তিনি আরও বলেন শুধু দক্ষিণ দিনাজপুরেই নয় উত্তরবঙ্গের অন্যান্য জেলাগুলি থেকেও প্রচুর মানুষ ব্রিগেডে যাওয়ার জন্য উৎসুক হয়ে রয়েছেন। কেন্দ্রের বিজেপি সরকার তা আগে থেকে আঁচ করতে পেরেই কুয়াশার বাহানায় একের পর এক ট্রেন বাতিল করে রেখেছে। যে ট্রেনগুলি চালু থাকলে জেলার গ্রামবাংলা থেকে সাধারণ মানুষ মালদা শিলিগুড়ি ও বালুরঘাট পৌছে সরাসরি কলকাতার ট্রেন ধরতে পারতেন। ট্রেন বাতিল করে রাখলেও মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ব্রিগেড সভায় জনপ্লাবণকে রোধ করতে পারবে না বিজেপি। কারণ শত কষ্ট হলেও সাধারণ মানুষ ১৯ জানুয়ারিতে ব্রিগেডে হাজির থাকার দৃঢ় সংকল্প করে রেখেছেন বলেও বিপ্লব মিত্র জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ ডিসেম্বর থেকে বেশ কিছু ট্রেন কয়েক সপ্তাহের জন্য বাতিল করেছে রেল। যার মধ্যে শুধুমাত্র কাটিহার ডিভিশনেই মালদা-বালুরঘাট, বালুরঘাট-শিলিগুড়ি সহ নয়টি ট্রেন রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে জেলার বালুরঘাট ও গঙ্গারামপুর স্টেশনে অবস্থান বিক্ষোভও প্রদর্শন করেছেন সাধারণ মানুষ। বাতিল ট্রেন গুলি দ্রুত চালুর দাবিতে রেল উন্নয়ন কমিটি গুলির তরফে একাধিকবার ডেপুটেশনও পাঠানো হয় দিল্লীর রেল ভবনে।

এবারের ব্রিগেড সমাবেশে দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে এক লক্ষেরও বেশি কর্মী সমর্থক অংশ নিবে বলে দাবি করেছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেড সমাবেশ যদি ফাইনাল হয়, তাহলে বালুরঘাটের শনিবারের সভাকে সেমিফাইনাল বলেও দাবি করেছেন বিপ্লব মিত্র।