স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: ফের ট্রেন অবরোধে নাজেহাল নিত্যযাত্রীরা। কাঁকিনাড়া ২৯ নম্বর রেলগেটে ট্রেন অবরোধ সাধারণ মানুষের।

এলাকায় সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এই অবরোধ। মঙ্গলবার সকালে আপ এবং ডাউন লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ভাটপাড়া উপ নির্বাচনের দিন বিকেল থেকে শুরু হওয়া অশান্তি ও রাজনৈতিক অশান্তি এখনও বন্ধ হয় নি। বহিরাগতদের আনাগোনা ও তাদের ছড়ানো হিংসা রোজই চলছে বলে স্থানীয় দের অভিযোগ। তাদের অভিযোগ যে বহিরাগত দুষ্কৃতীরা এলাকায় নিত্য দিন অশান্তি করছে ও সন্ত্রাস চালাচ্ছে।

সোমবারও সকাল ৭টা ৫ মিনিট নাগাদ অবরোধ শুরু হয়। প্রায় ২ ঘণ্টা পর অবরোধ ওঠে। সপ্তাহের প্রথম দিন অফিস টাইমে রেল অবরোধের জেরে চরম বিপাকে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। দেরিতে চলে বহু ট্রেন।

রবিবার ভোটের পর থেকেই উত্তপ্ত ওই এলাকা। বোমাবাজি চলছে, ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। ভোট পরবর্তী সংঘর্ষের প্রতিবাদেই কাঁকিনাড়ায় রেল অবরোধ করেন স্থানীয়দের একাংশ। ভোট ঘিরে অশান্তির জেরে স্থানীয়দের অনেকের বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, অনেকে জখম হয়েছেন বলে খবর। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন বাসিন্দারা।

উল্লেখ্য গত রবিবার দেশে সপ্তম দফা ভোটের দিন কাঁকিনাড়ার কাটাপুকুর এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি চলে। দফায় দফায় তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ হয়। তৃণমূলের অভিযোগ, ওই এলাকায় যাচ্ছিলেন উপনির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী মদন মিত্র। সে সময়ই তাঁকে ঘিরে বোমাবাজি চলে। বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনার পরই গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে পুলিশ। পরিস্থিতি সামলাতে লাঠি চালায় তারা। এলাকায় কার্ফু জারি করা হয়।