কলকাতা : বুধবার সকাল থেকে দফায় দফায় চলে রেল অবরোধ। অবরোধ করেন বন্‌ধ সমর্থনকারীরা। ফলে দুর্ভোগে পড়েন অসংখ্য নিত্যযাত্রী।

এক নজরে রেলপথের ভোগান্তি

সূত্রের খবর, বুধবার বাম কংগ্রেসের সাধারণ ধর্মঘটের জেরে হাওড়া ডিভিশনে ৪২টি এবং শিয়ালদহ ডিভিশনে ১২৬টি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া বেশ কিছু ট্রেন লেটে চলে।

বুধবার যে সব স্টেশনে ট্রেন অবরোধ করা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে শ্রীরামপুর স্টেশন, আগরপাড়া, মগরাহাট, চম্পাহাটি ও শ্যামনগর, অশোকনগর সহ অন্যান্য স্টেশন।

ধর্মঘটের জেরে শিয়ালদহ থেকে অনেক ট্রেন ছাড়েনি। এছাড়া শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় ওভারহেড তারে কলাপাতা ফেলে দেওয়া হয়। ফলে ঘুটিয়ারি শরিফ, চম্পাহাটি, লক্ষ্মীকান্তপুর, মথুরাপুরে ট্রেন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।

এক সময় ব্যান্ডেল-হাওড়া লাইনে ট্রেন চলাচল বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। বিভিন্ন স্টেশনে বেশ কয়েকটি লোকাল ট্রেন দাঁড়িয়ে পড়ে।

বনধ সমর্থকরা একে একে শ্যামনগর, নৈহাটি, হালিশহর, কাঁচড়াপারা স্টেশনে রেল অবরোধে সামিল হন। ফলে সকাল থেকে শিয়ালদহ মেন শাখার রেল চলাচল ব্যাহত হয়।

রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ঘোষপাড়া রোড, কল্যাণী এক্সপ্রেসওয়ে, বিটি রোডে দফায় দফায় আবরোধ করে বনধ সমর্থকরা। তবে বেলা ১০ টার পর সেই ভাবে বনধ সমর্থকদের রাস্তায় নেমে রেল বা গাড়ি আটতে আর দেখা যায়নি। দুপুরের পর ব্যারাকপুরে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায় । রাস্তায় নামে সরকারি এবং বেসরকারি বাস, অটো, ট্যাক্সি, টোটো সবই।