নয়াদিল্লি: ইনকামিং কলের ক্ষেত্রে মোবাইলে কতক্ষণ রিং হবে, তা নিয়ে নির্দিষ্ট কোনও নিয়ম ছিল না এতদিন। বিভিন্ন টেলিকম সংস্থাগুলি নিজেদের মত বেঁধে দেওয়া সময় পর্যন্ত রিং করে, যাতে উল্টো দিক থেকে কল ব্যাক করার সম্ভাবনা বাড়ে।

এই ইস্যুতে এয়ারটেল, ভোডাফোন কিংবা জিও-র মধ্যে দীর্ঘদিনের একটা চাপান-উতোর ছিল। আর সেটা বন্ধ করতেই এবার রিং হওয়ার নির্দিষ্ট সময় বেঁধে দিল টেলিকম রেগুলেটরি সংস্থা TRAI. সংস্থার নয়া নিয়ম অনুযায়ী, ন্যুনতম ৩০ সেকেন্ড রিং হতেই হবে। এছাড়া ল্যান্ড ফোনে ৬০ সেকেন্ড রিং হওয়া বাধ্যতামূলক বলে দেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই এই সংক্রান্ত একটা নির্দেশিকা দিয়েছে টেলিকম অপারেটরগুলিকে।

সম্প্রতি রিং টাইম কমিয়েছে বিএসএনএল বাদে সব সংস্থা। সূত্রের খবর, দু’টি সংযোগ সংস্থার মোবাইলে কল চালাচালির সময় ইন্টারকানেক্ট ইউসেজ় চার্জ (আইইউসি) নামের মাসুল দেওয়া-নেওয়ার যে চুক্তি থাকে, সম্প্রতি তা নিয়ে লড়াই শুরু হয়েছে সংস্থাগুলির মধ্যে। রিং টাইম নিয়ে দর কষাকষি মূলত তারই জের।

অন্যদিকে, এয়ারটেল দাবি করেছিল, রিলায়েন্স-জিয়োর গ্রাহক অন্য সংস্থার গ্রাহককে ফোন করলে তা ২৫ সেকেন্ড বেজেই থেমে যাচ্ছে। ফলে অনেক সময়ই অন্য পক্ষ তা ধরতে পারছেন না। ‘মিসড কল’ পেয়ে বহু ক্ষেত্রে অন্য সংস্থার গ্রাহক জিয়ো গ্রাহককে পাল্টা ফোন করতে বাধ্য হচ্ছেন। ফলে জিয়ো সেই সংস্থাকে আইইউসি দেওয়ার বদলে, উল্টে তাদের থেকে তা আদায় করছে। এই অভিযোগ তুলে ট্রাইকে এয়ারটেল জানায়, তারাও রিং টাইম কমিয়ে ২৫ সেকেন্ড করছে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV