শিলিগুড়ি: এ বছরের মতো শীত শেষ হওয়ার পথে। তবে পাহাড়ে এখনও পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়। শৈলশহর দার্জিলিঙের পাশাপাশি ডুয়ার্সের সব হোটেলও কানায়-কানায় পূর্ণ। হোটেল-কটেজে পর্যটকদের ভিড় থাকায় খুশির মেজাজে উত্তরবঙ্গের পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ীরা।

পর্যটনের মরশুম শেষ হওয়ার পথেও উত্তরবঙ্গে ভিড় জমাচ্ছেন পর্যটকরা। এরাজ্য তো বটেই ভিনরাজ্য এমনকী বিদেশ থেকেও পর্যটকরা এসে ভিড় জমাচ্ছেন ডুয়ার্স, দার্জিলিং-সহ উত্তরবঙ্গের একাধিক টুরিস্ট স্পটে। এমনিতেই শেষের পথে এবারের শীত।

রাতে ও ভোরের দিকে শীতের অনুভূতি থাকলেও বেলা বাড়তেই রোদের তাপও তীব্র হতে শুরু করেছে বহু এলাকায়। তবে উত্তরবঙ্গের ডুয়ার্স, দার্জিলিঙে এখনও মেজাজে ব্যাটিং শীতের।

পাহাড়ে এবার শীতের চওড়া ইনিংস। আর তাই শৈলশহরে পর্যটকের সংখ্যাও কমেনি। পর্যটনের মরশুমের বিদায়ের সময়েও পাহাড়ের সব হোটেলেরই অর্ধেকের বেশি ঘরে পর্যটকরা রয়েছেন। দার্জিলিং, কালিম্পঙ ও ডুয়ার্সের কটেজগুলিতেও পর্যটকদের নজরকাড়া ভিড় চোখে পড়ছে।

দার্জিলিহের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, মনোরম আবহাওয়ায় মজেছেন পর্যটকরা। শৈলশহরকে তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করতে চেষ্টার কসুর ছাড়তে নারাজ পর্যটকরা। এই সময়টায় পাহাড়ে কনকনে ঠাণ্ডা নেই। হাড়কাঁপানো শীতের বদলে এখন পাহাড়জুড়ে মনোরম আবহাওয়া। আলতো পরশে বয়ে চলা উত্তুরে হাওয়ার জেরে পাহাড়ের ঠান্ডা অন্যরকম আমেজ জোগাচ্ছে ভ্রমণপ্রিয় বাঙালিকে।

আর তাই এই সময়ে পাহাড় বেড়াতে এসে খুশির সীমা নেই পর্যটকদের। দার্জিলিং ও ডুয়ার্সের আনাচে-কানাচে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পর্যটকরা। স্মার্টফোনে উঠছে দেদার সেলফি ও গ্রুফি। মুহূর্তে সেই ছবি আপলোড হচ্ছে সোশাল মিডিয়ায়। সেকেন্ডের মধ্যে লাইক-কমেন্ট-শেয়ারের বন্যা।

এদিকে, শীতের বিদায়লগ্নে পাহাড়ে পর্যটকদের ভিড় থাকায় বেজায় খুশি এলাকার ব্যবসায়ীরা। এক হোটেল ব্যবসায়ী জানালেন, এবার শীতের শুরু থেকেই বুকিং পূর্ণ ছিল। তবে এখনও পাহাড়ে পর্যটকদের আনাগোনা লেগে রয়েছে।

প্রায় প্রতিদিনই ঘর বুকিংয়ের জন্য ফোন আসছে। একইরকমভাবে খুশি পাহাড়ের আনাচে-কানাচে নিত্যনতুন সামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসা ছোট ব্যবসায়ীরাও। পর্যটকদের ভিড় বাড়ায় বড় বড় দোকানের পাশাপাশি তাঁদেরও বিক্রি বেড়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও