বিশেষ প্রতিবেদন: সিকিমের ছোট্ট সুন্দর পাহাড়ি শহর নামছি। এই শৈলশহর ৪৪০০ ফুট উঁচুতে অবস্থিত। এখানে দাঁড়িয়ে কাঞ্চনজঙ্ঘার অপার সৌন্দর্য উপভোগ করা যায়। চোখের সামনে ধরা দেয় সবুজ উপত্যকার রেঞ্জগুলি। নামচির কাছেপিঠে রয়েছে নানা সুন্দর বেড়ানোর জায়গা। নামচি থেকে মাত্র ১৮ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ছোট্ট চা-বাগান টেমি। এখানে গেলে চোখ জুড়বে সবুজে। মনে আসবে প্রশান্তি।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কারণে ফি-বছর পর্যটকদের ঢল নামে নামচিতে। পর্যটনকেই তাই জীবিকা করে নিয়েছে স্থানীয় সাধারণ মানুষরা। দেখার মধ্যে রয়েছে বুদ্ধধাম, রামেশ্বরধাম, জগন্নাথধাম ইত্যাদি। নামচির আরও এক আকর্ষণ ৮৭ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট শিবের মূর্তি। মূর্তিটিকে ঘিরে গড়ে উঠেছে পার্ক। সেখানে পর্যটকরা ভিড় করেন। নামছি থেকে ঘুরে আসা যায় রাবাংলার বুদ্ধ পার্ক।

এছাড়াও রয়েছে সাঁই বাবার মন্দির। সব মিলিয়ে দিন কয়েকের অবকাশের জন্য সেরা ঠিকানা সিকিমের নামচি। নামচিতে যেতে হলে শিয়ালদহ থেকে রাত সাড়ে আটটার কাঞ্চনকন্যা এক্সপ্রেসে চাপুন। পরদিন ভোরে এনজেপি স্টেশনে পৌঁছন। সেখান থেকে ভাড়া গাড়িতে নামচি যাওয়া যায়। ইদানীং নানা মানের হোটেল গড়ে উঠেছে নামচিতে। সাধ্য মতো হোটেল খুঁজে নিতে হবে। আগে থেকে বুকিং করা জরুরি। পুজো আসতে আর বেশি দেরি নেই। তাহলে এখুনি টিকিট কেটে ফেলুন।