কখনও দেশ অসহিষ্ণুতা নিবে উত্তাল। কখনও আবার হারিয়ে যাওয়ার গীতার ঘরে ফেরার আনন্দে মশগুল। জঙ্গি হামলার আতঙ্ক আর জলমগ্ন চেন্নাইয়ের স্মৃতি বুকে নিয়ে আরও একটা বছর পার করল দেশ। সাজানো রইল তেমই কয়েকটি ঘটনা যার জন্য ২০১৫-কে মনে রাখবে দেশবাসী।

গুরুদাসপুর হামলা:

punjab-2

বড়সড় জঙ্গি হানার সাক্ষী হল পঞ্জাবের গুরুদাসপুর। থানায় ঢুকে উপস্থিত সব পুলিশকর্মী ও কয়েদিদের ওপর হামলা চালাল পাক জঙ্গিরা। ঘটনায় মৃত্যু হয় মোট ১৩ জনের। সকাল থেক টানা ১১ ঘণ্টা গুলির লড়াই চলে জঙ্গি ও সেনার। অপারেশনে নামে প্রায় ৩০০ জঙ্গি। অবশেষে জঙ্গি মুক্ত হয় গুরুদাসপুর। ঘটনায় শহীদ হন গুরুদাসপুরের পুলিশ সুপার বলজিৎ সিং৷

ফাঁসিতে ইয়াকুব মেমন

memon

ফাঁসিতে ঝোলান হল মুম্বই হামলার অন্যতম অভিযুক্ত ইয়াকুব মেমনকে। অনেক বিতর্কের পর তাকে ফাঁসির রায় দেয় আদালত। বারবার মেমনের আবেদনের জেরে মধ্যরাতে বিচারপ্রক্রিয়া চলে সুপ্রিম কোর্টে। খারিজ হয়ে যায় আবেদন। এত বছর পর বিচার পেল মুম্বইবাসী। ফাঁসি দেওয়া হল দাউদের অন্যতম সঙ্গীকে।

পাকড়াও ছোটা রাজন

rajan
ইন্দোনেশিয়ার বালি থেকে গ্রেফতার হল ভারতের কুখ্যাত গ্যাংস্টার রাজেন্দ্র সদাশিব নিকলজে ওরফে ছোটা রাজন। প্রায় দুই দশক ধরে তার পিছনে ধাওয়া করার পর অবশেষে তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। রবিবার বিকেলে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া পুলিশের কাছ থেকে খবর পাওয়ার পরই ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ তাকে আটক করে। ১৯৯৫ সালে ছোটা রাজনকে ‘ওয়ান্টেড’ হিসেবে চিহ্নিত করে ইন্টারপোল। আপাতত ভারতে সিবিআই হেফাজতে রয়েছে ছোটা রাজন।

দাদরি-কাণ্ডে উত্তাল দেশ

dadri

এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুনের ঘটনায় তোলপাড় হল সারা দেশ। উত্তরপ্রদেশে আখলাক নামে ওই ব্যক্তি গোমাংস খেয়েছে বলে তাঁর বাড়িতে ঢুকে তাঁকে পিটিয়ে খুন করা হয়। অভিযোগ, তাঁদের ফ্রিজ থেকে কয়েক টুকরো মাংস পাওয়া যায়, যা গোমাংস বলে দাবি করে অভিযুক্তরা। গুরুতর জখম অবস্থায় আখলাকের ছেলেকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। আর তারপরই দেশ জুড়ে শিরোনামে উঠে আসে অসহিষ্ণুতা ইস্যু। প্রতিবাদে জাতীয় পুরস্কার ফেরৎ দেন বহু শিল্পী-অভিনেতা।

ঘরে এল 'মুন্নি'

geeta

১৫ বছর পর ঘরে ফিরলেন গীতা৷ ১৫ বছর আগে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে ঢুকে পড়েছিল সাত-আট বছরের মূক-বধির মেয়েটি৷ সেই সময় তাঁর পরিচয় জানতে পারেনি সেদেশের পুলিশ৷ তাই ঠাঁই হয়েছিল পাকিস্তানের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইধি ফাউন্ডেশনে৷ দীর্ঘ দিন সেদেশে থাকার পর অবশেষে ঘরে ফিরল ভারতের মেয়ে৷ রিল গল্প যেন সত্যি হল গীতার হাত ধরে৷ দেশে ফিরলেন ‘ভারতের মুন্নি’৷

লালু-নীতিশের বিহার জয়

bihar
বিহারের বিধানসভা ভোটে অভাবনীয় সাফল্য পেল লালু-নীতিশ মহাজোট। মোদী ঝড় ধুয়ে মুছে দিল বিহার। তৃতীয় বারের জন্য বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হলেন নীতীশ কুমার।

ভয়ঙ্করতম বন্যায় ভাসল চেন্নাই

chennai-flood

একটানা বৃষ্টিতে ব্যাপক বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয় চেন্নাইতে। গত ১০০ বছরের মধ্যে এত বৃষ্টি দেখেনি চেন্নাইবাসী। মৃত্যু হয় প্রায় ৩০০ জনের। ঘরছাড়া হন বহু মানুষ। জল ঢুকে যায় অফিস,শপিং মল থেকে শুরু করে বড় বড় বিল্ডিং-এ ঢুকে যায় জল। নামানো হয় সেনা। ১০০০ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করেন মোদী।

কেজরিওয়ালের জোড়-বিজোড় ফর্মুলা

delhi-traffic

দূষণ ঠেকাতে ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিল দিল্লির সরকার। রাস্তায় গাড়ি চালানোর ব্যাপারে জোড়-বিজোড় নম্বর প্লেটের ফর্মুলা বের করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এই ফর্মুলা অনুসারে, বিজোড় নম্বরের অধীনস্থ গাড়িগুলি সোম, বুধ এবং শুক্রবার রাস্তায় বেরোবে। আর জোড় নম্বরের অধীনস্থ গাড়িগুলি মঙ্গল, বৃহস্পতি এবং শনিবার রাস্তায় বেরোবে। ১ জানুয়ারি থেকে পরীক্ষামূলকভাবে এই ফর্মুলা প্রয়োগ করা হবে।

পাস হল জুভেনাইল বিল

nirbhaya 1

নির্ভয়া-কাণ্ডে নাবালক অপরাধীকে নিয়ে অনেক তর্ক-বিতর্কের পর অবশেষে রাজ্যসভায় পাশ হল জুভেনাইল জাস্টিস বিল। নির্ভয়ার বাবা-মা’কে দর্শকাসনে বসিয়ে পাস হয় এই বিল। জুভেনাইল জাস্টিসের এই নতুন বিলে নাবালক অপরাধীদের কড়া শাস্তির কথা বলা হয়েছে। এই বিল অনুসারে, ১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সী নাবালক বা নাবালিকা ধর্ষণ অথবা খুনের মতো জঘন্য অপরাধ করলে তাকে প্রাপ্তবয়স্ক ধরে নিয়ে বিচার হবে। চলতি বছরের গোড়াতেই লোকসভায় এই সংশোধনী বিলটি পাশ হয়ে গিয়েছিল।

আচমকা পাকিস্তানে মোদী

modi-sharif-

২৫ ডিসেম্বর। রাশিয়া থেকে ফেরার পথে নরেন্দ্র মোদীর আফগানিস্তানে যাওয়ার কথা ছিল পূর্ব নির্ধারিত। সেইমত সেখান যান তিনি। সেখান থেকে ফেরার পথে আচমকা সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়ে তিনি পৌঁছে যান পাকিস্তানে। পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের জন্মদিনে ত২আকে শুভেচ্ছা জানাতেই গিয়েছিলেন মোদী। এক দশকেরও বেশি সময় বাদে কোনও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানে গেলেন। তাও আবার এমন ঝটিকা সফরে! এই ঘটনা রীতিমত অবাক করে দিয়েছে বিশ্বের তাবড় তাবড় নেতাদের।