ইসলামাবাদ: নিজের সিদ্ধান্তে নিজেই কী সমস্যায়, অন্তত পাকিস্তানের জন্য এমনটাই মনে করছে অনেকে৷ কারণ, ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। কাশ্মীর থেকে আর্টিকল ৩৭০ তুলে নেওয়ার পর ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি ছিন্ন করা হবে বলে একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়ে দেয় পাকিস্তান৷ আর এই সিদ্ধান্তের পর এখন শোনা যাচ্ছে ভারত থেকে আমদানিকৃত জিনিস প্রবেশ বন্ধ করে নিজেই বিপাকে পাকিস্তান৷ এই মুহূর্তে টমেটো নাকি সেখানে কিলো প্রতি ৩০০টাকায় গিয়ে পৌঁছেছে৷ টমেটো এভাবে সাধ্যের বাইরে চলে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে পাকিস্তানাবাসী৷

প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মধ্যে টমেটোও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যা ভারত থেকে পাকিস্তানে যায়৷ কিন্তু পাক সরকারের ভারতের সঙ্গে এই বাণিজ্য বন্ধে রীতিমতো সমস্যায় পড়েছে আমজনতা৷

প্রসঙ্গত, বুধবার পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানে ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটির সঙ্গে বৈঠকে বসেন। এরপরই ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য সংক্রান্ত দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ভঙ্গ করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সেইসঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা হবে বলেও জানা যায়৷

একইসঙ্গে পাকিস্তান জানিয়ে দেয় যে তারা ভারতে নিযুক্ত তাদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে নেবে। সংবাদমাধ্যমে এই খবর জানান পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। তিনি বলেন, ‘দিল্লি থেকে আমাদের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে আনব। আনব পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকেও পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’ বর্তমানে ভারতে কোনও পাক রাষ্ট্রদূত নেই। কিছুদিনের মধ্যে পাক কূটনীতিক মইন-উল-হককে এখানে নিযুক্ত করার কথা ছিল। তবে এবার আর তিনি দিল্লিতে আসছেন না।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ