নয়াদিল্লি: চাহিদা এবং যোগানের সমীকরণ একধাক্কায় অনেকটা বদলে গিয়েছে করোনা পরিস্থিতিতে। উৎপাদন ধাক্কা খেয়েছে তাই চরচর করে দাম বেড়েছে টম্যাটোর। সব বড় শহরে দামের এই পরিবর্তন নজর কাড়ছে।

জানা গিয়েছে, টম্যাটোর রিটেল দাম প্রতি কিলোতে ৬০-৭০ টাকা, উপভোক্তা বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রাম বিলাস পাসওয়ান এমনটাই জানিয়েছেন। চাহিদার সঙ্গে উৎপাদনের রেশিও না মেলায় চরা দাম হয়েছে বলেই মনে করছেন তিনি।

কেন্দ্রের তরফের তথ্য অনুযায়ী, চেন্নাই ছাড়া অন্যান্য মেট্রো সিটিতে টম্যাটোর রিটেল দাম ৬০ টাকা প্রতি কিলো। গতমাসের তুলনায় যা ২০ টাকা বেশি। কিছুকিছু জায়গায় রান্নাঘরের দৈনন্দিন এই দ্রব্য ৭০ থেকে ৮০ টাকা প্রতি কিলোতে বিক্রি হচ্ছে।

গুরগাও, গ্যাংটক, শিলিগুড়ি এবং রায়পুরে ৭০ টাকায় টম্যাটো পাওয়া যাচ্ছিল পাশাপাশি, গোরক্ষপুর, কোটা, দিমাপুরে যা ৮০ টাকাতেও কিনেছেন সাধারণ মানুষ।

যে সব রাজ্য টম্যাটো উৎপাদন করে থাকে তাঁদের মধ্যে হায়দরাবাদে ৩৭ টাকা প্রতি কেজি, চেন্নাইতে ৪০ টাকা প্রতি কেজি এবং বেঙ্গালুরুতে ৪৬ টাকা প্রতি কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে টম্যাটো।

মন্ত্রী এও জানিয়েছেন, স্বাভাবিকভাবে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর অবধি দাম বেশি থাকে। চাহিদা বেশি হওয়ার জন্য যা রাও দুর্মূল্য হয়েছে। তবে যোগান বাড়লে দাম কিছুটা কমবে বলেও আশাপ্রকাশ করেছেন রাম বিলাস পাসওয়ান।

শেষ পাঁচবছরের তথ্য ঘেঁটে দেখা গিয়েছে, এই সময়ে টম্যাটোর দাম সাধারণত অনেকটাই বেড়ে যায়। দেশের মধ্যে উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড, পঞ্জাব, তামিলনাডু, কেরল, জম্মু ও কাশ্মীর, অরুণাচলপ্রদেশে টম্যাটোর উৎপাদন সবচেয়ে কম। যে সকল রাজ্য বেশি উৎপাদন করে তাঁদের উপর মূলত নির্ভরশীল এই রাজ্যগুলি।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ