নয়াদিল্লি : ক্যান্সারে আক্রান্ত বিশিষ্ট অভিনেতা টম অল্টার৷ স্কিন ক্যান্সারের চতুর্থ স্টেজে রয়েছেন তিনি৷ জানিয়েছেন তাঁর ছেলে জেমি অল্টার৷

সকালেই খবর পাওয়া গিয়েছিল হাড়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত টম৷ সেই রিপোর্ট ভুল জানিয়ে জেমি বলেছেন, তাঁর বাবার হাড়ে নয়, ত্বকে ক্যান্সার হয়েছে৷ গতবছর থেকে তিনি এই রোগের চিকিত্সা করাচ্ছেন৷ এখন কর্কট রোগ চতুর্থ স্টেজে রয়েছে৷ “একে বলে স্কোয়ামাস সেল কার্সিনোমা৷ এটি এক ধরণের স্কিন ক্যান্সার৷ দুর্ভাগ্যবশত বিভিন্ন কারণে তখন এই রোগ ধরা পড়েনি৷” বলেছেন জেমি৷

আপাতত মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন টম৷ এক সপ্তাহ ধরে সেখানে তাঁর চিকিৎসা চলছে৷ এই রোগের কারণে গতবছর তাঁকে বুড়ো আঙুল কেটে বাদ দিতে হয়৷ জেমি জানিয়েছেন, রোগের সঙ্গে যুজঝেন টম৷ যথাসম্ভব সেরা তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে৷ দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করা চলছে৷ জেমি বলেছেন, “আমরা চিকিৎসা নিয়ে খুব খুশি৷ তাঁর শারীরিক অবস্থা আপাতত ভালো৷ চিকিৎসকরাও তাঁর অবস্থা নিয়ে খুশি৷ এক সপ্তাহ চলে গেছে৷ শারীরিকভাবে তিনি ক্রমশ শক্ত হয়ে উঠছেন৷ চিকিৎসকরা এবার তাঁদের পরবর্তী চিকিৎসা শুরু করতে পারবেন৷”

টম অল্টার ইন্দো-আমনেরিকান অভিনেতা৷ শক্তিমান, বেতাল পঞ্চবিশতি, ক্যাপ্টেম বোমের মতো ছোটোদের টেলিভিশন সিরিয়ালে তিনি অভিনয় করেন৷ পরিন্দা, গান্ধী, ক্রান্তি, আশিকির মতো বেশ কিছু ছবিতেও তিনি অভিনয় করেছেন৷ সত্যজিৎ রায়ের শতরঞ্জ কি খিলাড়িতে অভিনয় করেন তিনি৷ শেষ তাঁকে দেখা গেছে সরগোশিয়াতে৷ এবছর মে মাসে রিলিজ করেছে সিনেমাটি৷ পুনে ফিল্ম ইনস্টিটিউটের অ্যাক্টিং ডিপার্টমেন্টের প্রধানের দায়িত্বও সামলেছেন তিনি৷ ভারতীয় সিনেমায় তাঁর অবদানের জন্য ২০০৮ সালে তিনি পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হন৷