কলকাতা: আগামী ১০ জুন থেকে শুরু হচ্ছে টলি-পাড়ার শুটিং। লকডাউনে এতদিন শুটিং বন্ধ থাকায় রীতিমতো সিঁদুরে মেঘ দেখছিলেন শিল্পী থেকে কলাকুশলীরা। অবশেষে এই খবরে স্বস্তি মিলল অনেকটা। রবিবার বৈঠকে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এবং অন্যান্য উপস্থিত সংগঠনগুলি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে কড়া নিরাপত্তা ও সতর্কতা বিধি সঙ্গে রেখেই চলবে শুটিংয়ের কাজ।

করোনার আবহে শুটিং শুরু হওয়ায় বেশ কিছু সতর্কীকরণ রাখা হয়েছে। সেগুলি আজকের বৈঠকেই স্থির করা হয়। যেমন-

১) শুটিংয়ের সেটে ৩৫ জনের বেশি কেউ উপস্থিত থাকতে পারবেন না।

২) ১০ বছরের নীচের কোনও শিশু এখন শুটিংয়ে অংশ নিতে পারবে না।

৩) ষাটোর্ধ্ব অভিনেতাদের ক্ষেত্রেও নতুন নিয়ম রাখা হয়েছে। তাঁরা নিজেরা মুচলেকা দিয়ে শুটিং করতে চাইলে তবেই তাদের রাখা হবে।

৪) শুটিংয়ের লোকেশন এর ক্ষেত্রেও বিশেষ সতর্কতা মেনে চলতে হবে। প্রাধান্য দেয়া হবে ইনডোর শুটিং কে। দেশে বা বিদেশে অন্য প্রান্তে গিয়ে শুটিং করা এড়িয়ে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কারণ এতে সংক্রমণের ঝুঁকি কয়েকগুণ বেড়ে যায়। তবে এর জন্য কিছু চলতি ছবির সমস্যা হয়েছে যেগুলির শ্যুটিং চলছিল লকডাউন এর আগে ‌। সেগুলির নতুন করে সমস্ত কিছু সাজাতে হবে।

৫) শিল্পীদের জন্য ২৫ লক্ষ টাকার বিমা ঘোষণা হয়েছে। তার ৫০ শতাংশ দেবেন প্রযোজকরা আর বাকি ৫০ শতাংশ দেবেন শিল্পীরা।

৬) সংক্রমণ এড়াতে বাইরের কোন অভিনেতাকে ডেকে এনে কাজ করানোর ব্যাপারেও সতর্ক তা মেনে চলতে বলা হয়েছে।

তবে শুটিংয়ের আগে মেকআপ এবং শৌচালয়ের ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয়ে যে আরো সচেতন থাকতে হবে তাও বলে দেয়া হয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ