কলকাতা: মঙ্গলবার শুরুতেই টলিপাড়ায় এসেছে খারাপ খবর। মুম্বইয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভোর ৩ টে ৩৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তাপস পাল। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোকের ছায়া বাংলা টলি মহলে।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া স্বাক্ষাৎকারে সহকর্মী তাপস পাল সম্পর্কে বলতে গিয়ে স্মৃতিমেদুর হয়ে পড়েন তাঁর সহকর্মীরা। খবর শুনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তাঁর একাধিক সিনেমার নায়িকা দেবশ্রী রায়।

তিনি বলেন,” আমি বিশ্বাসই করতে পারছি না। একটার পর একটা ছবি করেছি আমরা।…” এরপরেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। শোকে মানসিক ভাবে বিধ্বস্থ হয়ে আর কথা বলতে পারেননি অভিনেত্রী।

তাপস পালের আর এক সহকর্মী ও বন্ধু চিরঞ্জিত চক্রবর্তী বলেন, সুপারস্টার ছিলেন তাপস পাল। পাশাপাশি তিনি জানান, “তাপসের শেষ জীবনটা অত্যন্ত খারাপ গেল, অত উজ্জ্বল ছেলের এই পরিণতি মানা যায় না।” তিনিও স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে বলেন, ‘অপূরণীয় ক্ষতি হল।’ কথা বলার সময় চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তীর গলাও ছিল আবেগপ্রবণ।

তাঁর মৃত্যুতে শুধু সহকর্মী না, শোকপ্রকাশ করেছেন পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্তও। তিনি বলেন, “অসম্ভব উঁচুদরের অভিনেতা ছিলেন তাপস পাল। তাঁর তুল্য অভিনেতা বর্তমান টালিগঞ্জে কার্যত নেই। ” পাশাপাশি তিনি অভিযোগ করেন, যথার্থ মূল্যায়ন হয়নি তাপস পালের।

পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তী বলেন, তাঁর সঙ্গে ফ্যামিলি ও বন্ধুর মতো সম্পর্ক ছিল। তিনি জানান, ” তাপস হইহই করে কাজ করতেন, খেতে ভালবাসতেন।” পাশাপাশি তিনি জানান, এক ভাল অভিনেতাকে হারাল টালিগঞ্জ।

শুধু এরা নন টলি সেলেবরা তাপস পালের মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তও তাপস পালের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। রচনা ব্যানার্জী বলেছেন, তাঁর মতো অভিনেতা টলিউড আর পাবে না।