স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে দেওয়াল লিখনের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারের কাজ শুরু করলেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যরা। মঙ্গলবার জলপাইগুড়ি শহরের রাজবাড়িপাড়া এলাকায় দেওয়াল লিখনের কাজ শুরু করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ।

নেতৃত্বে ছিলেন দলের জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি অভিজিৎ সিনহা। তিনি বলেন, আমাদের রাজ্যের ৪২টি আসনেরই মূল প্রার্থী হলেন দিদি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে ৪২টিতেই জিততে হবে আমাদের। দিদির এই নির্দেশ মেনেই নির্বাচনী প্রচারের কাজ শুরু করেছেন তাঁরা। সবকটি আসনের মধ্যে উত্তরবঙ্গের অন্যতম জলপাইগুড়ি লোকসভা আসন।

তাই এই আসনে বিজেপি যাতে কোনও ভোট না পায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে দলীয় কর্মীদের। তৃণমূল প্রার্থীকে বিপুল ভোটে জেতানোর দায়িত্ব নিতে হবে আমাদের সকলকে। এদিন নির্বাচনী প্রচারের মধ্য দিয়ে এই বার্তাই তুলে ধরা হয়েছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যদের মধ্যে।

অন্যদিকে জলপাইগুড়ি সদর ব্লকের পাহাড়পুর এলাকায় বিশাল এক নির্বাচনী সভার আয়োজন করেন তৃণমূল নেতা কৃষ্ণ দাস। নির্বাচনী প্রচারে তৃণমূলের মূল বার্তা হল যে কোনোভাবেই বিজেপি-কে রুখতে হবে। বিজেপি যাতে এই এলাকার একটিও ভোট না পায় সেই লক্ষ্য নিয়েই দলিয় কর্মীদের কাজ করার বার্তা দেন তিনি৷

তিনি বলেন, দিদি মমতা বন্দোপাধ্যায় স্পষ্ট করে বলে দিয়েছেন রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে ৪২টিতেই জিততে হবে তৃণমূলকে। এই ৪২টি আসনের মধ্যে রয়েছে জলপাইগুড়ি লোকসভা আসন। তাই এই আসনের তৃণমূল প্রার্থীকে জেতানোর দায়িত্ব নিতে হবে দলিয় কর্মীদেরই।