স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সব ধর্মের মেল-বন্ধন এই বাংলায়৷ উৎসব কারোর একার নয়, উৎসব সবার৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জনসমক্ষে একথা বারবারই বলেছেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর সেই অনুপ্রেরণাকে পাথেয় করেই পথ শিশুদের সঙ্গে বড়দিনের আনন্দ ভাগ করে নিল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যরা৷

সোমবার রাত ১২টার পর তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যরা স্যান্টা সেজে মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে পথ শিশুদের হাতে বড়দিন উপলক্ষে নানা উপহার তুলে দেন৷ মূল উদ্যোক্তা টিএমসিপির রাজ্যসভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য ও উত্তর ২৪ পরগনার টিএমসিপি জেলা সভাপতি বাণীব্রত চক্রবর্তী৷

দমদম স্টেশন, শিয়ালদহ স্টেশন, আমহার্স্ট্রীট থানা এলাকা ও কালীঘাট মন্দির সংলগ্ন এলাকার পথ শিশুদেকে বিভিন্ন উপহার দেন তারা৷ তৃণাঙ্কুর ও বাণীব্রত সান্টা সেজে ওইসব এলাকার শিশুদের সঙ্গে বড়দিনের আনন্দকে উপভোগ করেন৷ কেক, চকোলেট, বিস্কিট, বেলুন ও টুপি কচিকাচাদের উপহার স্বরূপ দেন তারা৷

পড়ুন: রাস্তার মোড়ে চালকদের চা খাওয়াচ্ছে পুলিশ!

তৃণাঙ্কুরের কথায়, ‘‘সান্টা কি বা কেন তা এইসব পথ শিশুরা বোঝে না৷ কিন্তু ওদেরও তো অধিকার আছে আর পাঁচটা বাচ্চার মত সব আনন্দে সামিল হওয়ার৷ কিন্তু তাদের হয়তো সামর্থে কুলোয় না৷ তাই আমাদের এই সামান্য উপহারে যদি এইসব পথশিশুদের মুখেই এক চিলতে হাসি ফোটে ক্ষতি কি৷’’

পড়ুন: বাঁকুড়ার বড়দিন, চার্চে প্রার্থনা আর খাওয়া দাওয়ায় হুল্লোড়

বড়দিন উপলক্ষে আজ সর্বত্রই ছুটির মেজাজ৷ নিক্কোপার্ক থেকে ইকোপার্ক, চিড়িয়াখানায় তিল ধারণের জায়গা নেই৷ একই অবস্থা শহরের রেস্তোঁরাগুলিরও৷ উদরপূর্তির জন্য লাইন দিয়ে চেয়ে রয়েছেন দরজার দিকে৷ অপেক্ষা একটাই, কখন আসবে নম্বর৷