স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: টিএমসিপি-এবিভিপি দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তপ্ত বাঁকুড়ার ইন্দাস মহাবিদ্যালয়।  মঙ্গলবার এই ঘটনায় এক ছাত্রী সহ এবিভিপির পাঁচ সদস্য আহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এবিভিপি সূত্রে দাবি করা হয়েছে, আগামী ১৪ ডিসেম্বর ইন্দাস মহাবিদ্যালয়ে নবীন বরণ অনুষ্ঠান রয়েছে। তার আগে তাদের সমর্থকরা কলেজে নিজেদের সংগঠনের পতাকা লাগাচ্ছিলেন। আর তারপরেই টিএমসিপি সমর্থকরা তাদের উপর চড়াও হয়। টিএমসিপি সমর্থকদের হাতে তাদের পাঁচ জন সদস্য আহত বলে তাদের তরফে দাবি করা হয়েছে। এই ঘটনায় আহত এক ছাত্রী সহ পাঁচ জনকে ইন্দাস ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর প্রত্যেকেই ছেড়ে দেওয়া হয়।

নিজেকে এবিভিপি সমর্থক দাবি করে ঝিলিক দাস নামে প্রথম বর্ষের এক ছাত্রী বলেন, ‘আমি কলেজে ঢুকছিলাম। সেই সময় কয়েকজন টিএমসিপি সমমর্থক আমাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। পরে স্থানীয় একজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করেন।’ এবিভিপি সমর্থকদের কলেজে পতাকা লাগানো আটকাতেই এই আক্রমণ বলে ওই ছাত্রী দাবি করেন।

টিএমসিপি পরিচালিত ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিওর মণ্ডল বলেন, ২০১০ সাল থেকে তারা এই কলেজে ক্ষমতায় রয়েছে। কোনও দিন কোনও সমস্যা হয়নি। আর আজকের এই ঘটনায় তাদের সংগঠনের কেউ যুক্ত নয়। তিনি দাবি করে আরও বলেন, কলেজে এবিভিপির গোষ্ঠীদ্বন্দের কারণেই নিজেদের মধ্যে মারামারি করেছে। তারপর তারা টিএমসিপির নামে দোষ চাপাতে চাইছে।

এই মুহূর্তে ঐ এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা থাকায় কলেজ চত্ত্বরে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন রয়েছে।