স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়কের বিরুদ্ধে বিধায়ক তহবিলের অর্থ তছরুপ করার অভিযোগ তুললেন তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি থেকে ব্লকের নেতৃত্ব। রীতিমত তথ্য ও প্রমান দিয়ে শুধু মালদহের জেলাশাসকের কাছেই নয়,অভিযোগের চিঠি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও পাঠিয়েছেন তাঁরা৷

স্বভাবতই রতুয়া বিধানসভার বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক নেতৃত্বের এমন অভিযোগের পর বেশ অস্বস্তিতে রাজ্য থেকে জেলা নেতৃত্ব। রতুয়ার ব্লক সভাপতি ফজরুল হকের অভিযোগ বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায় প্রায় ৫৬ লক্ষ টাকা তছরুপের সাথে যুক্ত।

স্থানীয়দের অভিযোগ বিধায়ক তহবিলের অর্থ দিয়ে রতুয়ার মহানন্দাটোলা ও দেবীপুর অঞ্চলে পানীয় জলের সমস্যা সমাধানের জন্য বেশ কয়েকটি টিউবওয়েল বা নলকুপ বসানোর পরিকল্পনা করা হয়। প্রকল্পে প্রতিটি নলকুপের জন্য আশি হাজার টাকা অনুমোদন করা হয়। কিন্তু খাতায় কলমে নলকুপের জন্য অর্থ বরাদ্দ হয়ে ব্যয়ও হয়ে যায়। কিন্তু একটিও নলকুপ বা টিউবওয়েল আজও নেই এলাকাতে। ফলে সমস্যা সেই তিমিরেই রয়েছে।

শুধু তাই নয়, পিচের রাস্তার উপর মাটির কাজ দেখিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ তুলেছেন ব্লক সভাপতি ফজরুল হক রতুয়ার বিধায়ক সমর মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তিনি জানান ‘দিদি কে বল’ কর্মসূচি করতে গিয়ে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে বিধায়কের বিরুদ্ধে এমন নজিরবিহীন দুর্নীতির অভিযোগ পেয়েছেন৷ তাই সরকারি এই অর্থ তছরুপের খতিয়ান নিয়ে বিচারের আর্জি জানিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা৷

তবে তাঁদের দাবি যদি যথাযথ ব্যবস্থা না হয় তবে পথে নেমে নিজের দলের বিধায়কের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবেন৷ যদিও এই নিয়ে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভানেত্রী মৌসম বেনজির নুর এখনই কোন মন্তব্য করতে নারাজ। বিষয়টি রাজ্য নেতৃত্বের কোর্টে রয়েছে বলে মন্তব্য থেকে এড়িয়ে গেছেন। তবে রতুয়া বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক বনাম ব্লক নেতৃত্বের এই লড়াই বেশ শোরগোল শুরু হয়েছে জেলা জুড়ে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।