বহরমপুর: প্রথমে বোমা ছুঁড়ে পরে গুলি করে খুন করা হল এক তৃণমূল কর্মীকে৷ সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ডোমকল থানার সারাংপুর পঞ্চায়েতের সাহাবাজপুর এলাকায়৷ মৃত তৃণমূল কর্মীর নাম লুকমান মণ্ডল (৫০)৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷

প্রাথমিক তদন্তে পারিবারিক গোলযোগের কারণে খুনের তত্ত্বই উঠে এসেছে৷ পরিবার সূত্রে জানা যায়, বালি নষ্ট করা নিয়ে ঝামেলার সূত্রপাত৷ বাড়ির পাশে রাস্তায় ঘর করার জন্য বালি পড়ে ছিল৷ সোমবার সকালে সেই বালির উপর দিয়ে ট্রাক্টর চালিয়ে দেয় লুকমানের চাচাতো ভাই আনারুল মন্ডল৷ ট্রাক্টর যাওয়াতে কিছুটা বালি নষ্ট হয়৷ বাড়িতে লুকমান ছিল না৷ সেই সময় মাঠে ছিল৷

মাঠের কাজ শেষ করে বাড়ির সামনে এসে বালি নষ্ট হতে দেখে চাচাতো ভাই আনারুল ও ভাইপো এসেম মন্ডলের সঙ্গে ঝামেলা বাধে লুকমানের৷ তিনজনের মধ্যে বচসা চরমে ওঠে৷ তখন লুকমান মন্ডলকে লক্ষ করে বোমা ছুঁড়ে মারা হয়৷ কোনরকমে সেখান থেকে লুকমান পালিয়ে আসলে এসেম গুলি চালায়৷ সেই গুলি লুকমানের কানে এসে লাগে৷ সেখানেই রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে৷

খবর পেয়ে ডোমকল থানার পুলিশ ঘটনাস্থল আসে৷ রক্তাক্ত অবস্থায় লুকমানকে উদ্ধার করে ডোমকল মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়৷ কেউ কেউ এই খুনের পিছনে রাজনৈতিক যোগ রয়েছে বলে দাবি তোলেন৷ তবে পরিবারের দিক থেকে রাজনৈতিক যোগের দাবি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।