স্টাফ রিপোর্টার, ফারাক্কা: নির্বাচনী জনসভা থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার তৃণমূল কর্মীরা। প্রাণ গিয়েছে এক ব্যক্তির। একই সঙ্গে জখম হয়েছেন প্রায় ৩০ জন তৃণমূলের কর্মী।

আরও পড়ুন- ঘড়ি থমকালেই ওলটপালট হয়ে যাবে সবকিছু, হারিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা

শুক্রবার বিকেলে বড়ঞা বিধানসভার ডাকবাংলো হাট এলাকায় তৃণমূলের প্রার্থী অপূর্ব সরকারের সমর্থনে নির্বাচনী জনসভা আয়োজন করা হয়। এই সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী।

আরও পড়ুন- ভোটে ভাঙড়: প্রকাশ্যে আরাবুলকে হুঁশিয়ারি রেড স্টার নেত্রী শর্মিষ্ঠার

ওই দিন সন্ধ্যায় তৃণমূলের সেই সভা থেকে ফেরার পথে ট্রাক্টর উল্টে মৃত্যু হল একজনের। জখম হলেন প্রায় ৩০জন। পুলিশ জানিয়েছে মৃত ব্যক্তির নাম কালি চরন ঘোষ (৪০), বাড়ি বড়ঞা থানার মামদপুর এলাকায়।

আরও পড়ুন- সরকারি চিকিৎসক প্রার্থীকে ভোটে অংশগ্রহণ করার অনুমতি হাইকোর্টের

পুলিশের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে যে ফরাক্কা হলদিয়া বাদশাহী সড়কের উপর বড়ঞা থানার তারাপুর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ট্রাক্টর উল্টে যায়। ওই ঘটনার জেরে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির। জখম হন প্রায় ৩০জন। আহতরা সকলেই ট্রাক্টর করে নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত হয়ে ছিলেন। আহতদের সবাইকে উদ্ধার করে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে চিকিৎসা জন্য।

আরও পড়ুন- বিজেপির আসন কমলেও মোদীকেই প্রধানমন্ত্রী চাইছে গুজরাত, দাবি সমীক্ষায়

এদিনই লোকসভা নির্বাচনে বহরমপুরের তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব সরকার মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। প্রায় তিন হাজার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে বিশাল মিছিল করে মনোনয়ন জমা দেন অপূর্ববাবু। ওই মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। মনোনয়ন জমা দেওয়ার পরে বিকেলে ডাকবাংলো হাটে আয়োজন করা হয়েছিল জনসভার। সেই সভা থেকে ফেরার পথেই দুর্ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন- বিমান বসুকে অগ্রাহ্য করেই অধীরের বিরুদ্ধে মনোনয়ন জমা করল আরএসপি প্রার্থী