কলকাতা: উন্নাও ইস্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করায় তৃণমূলের রাজ্য মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্যের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার এমনই অভিযোগ করল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। তৃণমূলের এমপি ডেরেক ও’ব্রায়েন বলেছেন, ‘গোটা ঘটনার প্রতিবাদে অবিলম্বে ফেসবুক কর্তা মার্ক জুকারবার্গকে চিঠি লিখবে দল।’

দেশজুড়ে প্রবল চাপের পড়ে উন্নাও ধর্ষণে অভিযুক্ত বিধায়ক কুলদীপ সিং সেঙ্গারকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি। কিন্তু এত পরে কেন? ধর্ষণের অভিযোগের পর নির্যাতিতাকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে কুলদীপের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হলেও কেন বিজেপি তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না, ফেসবুকে এমনই প্রশ্ন তুলেছিলেন তৃণমূলের রাজ্য মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্যও। তারপরই দেবাংশুর ফেসবুক একমাসের জন্যে ব্লক করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনা নিয়েই আসরে নেমেছে তৃণমূল। তাদের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকারকে খুশি করতে বিরোধীদের মুখ বন্ধে ফেসবুকের এ এক চরম স্বৈরতন্ত্রী পদক্ষেপ।

উন্নাও কাণ্ড নিয়ে দেশের সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত নড়েচড়ে বসেছে। মামলা সরে গেছে উত্তরপ্রদেশ থেকে। প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছে যোগী সরকার। সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, সাতদিনে দুর্ঘটনার তদন্ত শেষ করতে হবে৷ ৪৫ দিনের শেষ করতে হবে মধ্য বিচার পর্ব৷

ডেরেক ও’ ব্রায়েন বলেন, ‘ওই সোশ্যাল মিডিয়ার ভারতীয় শাখা কার্যত বিজেপির জোটসঙ্গী হিসেবে কাজ করছে। বিজেপি বিরোধী কথা পোস্ট করলেই অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। দেবাংশু ভট্টাচার্যের এই ঘটনাই প্রমাণ করে দিচ্ছে, বিজেপি কীভাবে তৃণমেূল কংগ্রেসকে টার্গেট করে চলেছে।’