হাওড়া: দিল্লির হিংসার প্রতিবাদে এবার হাওড়ায় পথে নামল তৃণমূল ট্রেড ইউনিয়ন৷ মিছিলের শ্লোগান ছিল ছিঃ ছিঃ বিজেপি৷ বৃহস্পতিবার দুপুরে হাওড়া স্টেশন পোস্ট অফিসের সামনে শুরু হয় মিছিল৷ প্রতিবাদ মিছিলটি বিভিন্ন এলাকা পরিক্রমা করে হাওড়া সবজি বাজার,হাওড়া-দীঘা বাসস্ট্যান্ড হয়ে হাওড়া স্টেশনের বড় ঘড়ির সামনে এসে শেষ হয়৷

এদিনের মিছিলের নেতৃত্ব দেন হাওড়া জেলা তৃণমূল ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি অরূপেশ ভট্টাচার্য৷ মিছিলের শ্লোগান ছিল ছিঃ ছিঃ বিজেপি৷ মিছিল শেষে অরূপেশবাবু বলেন,কেন্দ্রীয় সরকারের মানুষ মারার নীতির প্রতিবাদে, দিল্লিতে অশান্তি ও গণহত্যার প্রতিবাদে এবং ধর্মে ধর্মে বিভেদের প্রতিবাদে আমরা আইএনটিটিইউসি-র তরফ থেকে এই প্রতিবাদ ধিক্কার মিছিল করেছি৷

এর আগেও দিল্লির ঘটনায় সারা বাংলা জুড়ে মিছিল করেছে তৃণমূল৷ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ওই মিছিল করেন তৃণমূল কর্মীরা৷ বুধবার সারা বাংলার পাশাপাশি উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়াতেও মিছিল করেন শাসক দলের কর্মীরা।

হাবড়া দেশবন্ধু পার্ক এলাকা থেকে তৃণমূল কর্মীদের মিছিল শুরু হয়ে তা শেষ হয় জয়গাছি মোড় এলাকায়। মিছিল থেকে তৃণমূল নেতৃত্ব দাবি করেন, দিল্লীর ঘটনায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট মন্ত্রীর পদত্যাগ করতে হবে। পাশাপাশি তৃণমূল কর্মীদের দাবি ছিল, দিল্লির ‘গণহত্যা’র ঘটনায় যারা জড়িত আছে, তাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে।

যদিও প্রশাসনের দাবি, দিল্লির পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আয়ত্বের মধ্যে এসেছে। প্রশাসন যাই বলুন,দিন কয়েক আগেই সিএএ সমর্থনকারী ও বিরোধীদের সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিস্তীর্ণ প্রান্ত। মৌজপুর, জাফরাবাদ, চাঁদবাগ, সিলমপুর-সহ একাধিক এলাকায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দু’পক্ষ। যার জেরে মৃত্যু হয় ৪৭ জনের। এখনও শতাধিক মানুষ সংঘর্ষে আহত হয়ে দিল্লির বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। ৫০ জনেরও বেশি মানুষের শরীরে গুলির ক্ষত রয়েছে।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।