ফাইল ছবি

কোচবিহার: এবার প্রশান্ত কিশোরের টিমকে কটাক্ষ তৃণমূলেরই এক বিধায়কের। পিকে-র আই-প্যাক সংস্থাকে ঠিকাদারি সংস্থা বলে বিঁধলেন কোচবিহারের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। ভোটকুশলী পিকে-র সংস্থাকে বিঁধে মিহিরবাবুর কটাক্ষ, ‘‘রাজনৈতিক দলের সংগঠন চলে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের উপর ভিত্তি করে। ঠিকাদার দিয়ে রাজনৈতিক দলের সংগঠন চালানো সম্ভব নয়।’’

একুশের বিধানসভা ভোটের আগে ডান-বাম সব রাজনৈতিক দল কোমর-বেঁধে সংগঠন চাঙ্গা করার কাজে নেমে পড়েছে। করোনা আবহেও একাধিক দল ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে রাজনৈতিক কর্মসূচি চালাচ্ছে।

বাম, কংগ্রেস বিজেপির পাশাপাশি বিধানসভা নির্বাচনের আগে সংগঠন মজবুত করতে তৎপর শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের সাংগঠনিক শক্তি-বৃদ্ধির বহু দায়িত্বই সামলাচ্ছেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর। তাঁরই সংস্থা আই-প্যাক-এর ছকে দেওয়া কৌশলেই নির্বাচনী লড়াইয়ে রাজ্যের শাসক-শিবির।

এবার প্রশান্ত কিশোরের সংস্থাকেই বিঁধলেন কোচবিহারের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। তিনি বলেন, ‘‘রাজনৈতিক দলের সংগঠন চলে নেতা-কর্মীদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের উপর ভিত্তি করে। ঠিকাদার দিয়ে রাজনৈতিক দলের সংগঠন চালানো সম্ভব নয়।’’ চলতি মাসেই দলের সব পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের এই বিধায়ক। দলে মিহিরবাবুর স্বচ্ছ ভাবমূর্তি রয়েছে।

চলতি মাসে দলের সব পদ থেকে পদত্যাগ করার সময় তাঁর অভিযোগ ছিল, তাঁকে না জানিয়েই জেলায় দলের বিভিন্ন কমিটি করা হয়। সেই কমিটিতে যাঁরা জায়গা পেয়েছেন তাঁদের অনেকের বিরুদ্ধেই নানা অভিযোগ রয়েছে বলে দাবি তাঁর।

কিন্তু সেসবের তোয়াক্কা না করেই দুর্নীতিতে অভিযুক্তদের দলে জায়গা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ মিহিরবাবুর। এমনকী তৃণমূলনেত্রী নির্দেশ দিলে তিনি তাঁর বিধায়ক পদ থেকেও সরে দাঁড়াবেন বলে জানিয়েছিলেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।