নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ভোট চলছে৷ তারই মধ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক মন্তব্য করলেন রাজ্যের মন্ত্রী৷ ভোটের নিরাপত্তার দায়িত্বে আসা কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঝাঁটা হাতে তাড়া করার নির্দেশ দিলেন মন্ত্রী রত্না কর৷ যুদ্ধ জয়ে ন্যায় অন্যায় বলেও কিছু নেই বলে কর্মীসভায় জানান তিনি৷

মঙ্গলবার বিজেপি ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যুইটার হ্যান্ডেলে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়৷ সেখানেই রত্নাদেবীকে এই উস্কানিমূলক মন্তব্য করতে শোনা গিয়েছে৷ রাজ্যের মন্ত্রীর এই মন্তব্য ঘিরে ইতিমধ্যেই বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে৷

রাজ্য বিজেপির ট্যুইটারে প্রকাশিত ভিডিও থেকে স্পষ্ট, নদিয়ার রানাঘাটের তৃণমূল প্রার্থী রূপালী বিশ্বাসের সমর্থনে কর্মীসভা ছিল৷ সেখানেই বক্তব্য রাখছিলেন ওই জেলা থেকে নির্বাচিত বিধায়ক ও রাজ্যের মন্ত্রী রত্না দে৷ সেখানেই তিনি বলেন, ‘‘যুদ্ধে জিততে গেলে ন্যায় অন্যায়, গণতন্ত্র-ফনতন্ত্র বলে কিছু নেই৷ যে পদ্ধতি যেখানে দরকার সেখানে সেটা প্রয়োগ করবেন৷’’

আরও পড়ুন: পাহাড়ের ৮৭৪ বুথ স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত

ওই সভাতেই মন্ত্রীর সংযোজন, ‘‘২০১৬ সালে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকা সত্ত্বেও আপনা ভোট করে দেখিয়ে দিয়েছেন৷ কিন্তু রক্তাত্ব হয়েছেন৷ এবার তাই মেয়েদের বলব ঝাঁটা হাতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে তাড়া করুন৷’’ সভায় ছিলেন জেলা তৃণমূল নেতৃত্বও৷

ভোটে বাংলায় কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়োগ নিয়ে রাজ্যের সঙ্গে কমিশনের সংঘাত তৈরি হয়েছিল৷ সেই সংঘাত ঘিরে শাসক দলের নেতা, মন্ত্রীরা সুর চড়াচ্ছিলেন৷ সেই তালিয়ায় নব সংযোজন মন্ত্রী রত্না ঘোষ৷ এক জন মন্ত্রী কীভাবে এই ধরণের উস্কানিমূলক মন্তব্য কেন্দ্রীয় বহিনী সম্পর্কে করে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিরোধী শিবির৷