হাওড়া: গুলির শব্দে আতঙ্ক ছড়াল বাগনানের বাইনান কড়িয়া গ্রামে৷ স্থানীয়বাসিন্দারা সকালে দেখেন তৃণমূলের প্রাক্তন অঞ্চল সভাপতি শেখ আসাদুল রহমানের গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ পড়ে আছে৷ তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে গুলি করে খুন করা হয়েছে বলে পরিবারের অভিযোগ৷ তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

মঙ্গলবার সকালে হাওড়ার বাগনানের বাইনান কড়িয়া গ্রামে তৃণমূলের প্রাক্তন অঞ্চল সভাপতিকে গুলি করে খুন করা হয়েছে৷ অভিযোগ,ভোররাতে তৃণমূল নেতা শেখ আসাদুল রহমানের মোবাইলে একটি ফোন আসে৷ এরপরই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান বছর বাহান্নর ওই প্রৌঢ়৷ এরপরই তার গুলিবিদ্ধ দেহ বাড়ির কাছে পাওয়া যায়৷

তারপরেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে৷ স্থানীয় বাসিন্দারা দেহ আটকে বিক্ষোভ দেখান৷ এবং পথ অবরোধ করেন৷ এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠে৷ খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে৷ এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট৷

আমতা বিধানসভা কেন্দ্রের বাগনানের বাইনান অঞ্চলে তৃণমূলের প্রাক্তন অঞ্চল সভাপতি ছিলেন শেখ আসাদুল রহমান। সভাপতির পদ থেকে সরে যাওয়ার পর এলাকায় সক্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। পরিবার সূত্রে খবর, ভোর রাতের দিকে আসাদুলকে ফোন করে কেউ বা কারা ডেকে পাঠায়৷ তারপর সাইকেল নিয়ে তিনি বেরিয়ে যান৷

পুলিশ সূত্রে খবর, সাইকেলে যাওয়ার সময়েই আসাদুলকে দুষ্কৃতীরা ঘিরে ধরে পয়েন্ট ব্ল্যাংক রেঞ্জ থেকে গুলি করে। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়৷ তদন্তে নেমে পুলিশ প্রথমে আসাদুলের মোবাইলের কললিস্ট পরীক্ষা করে। তার ভিত্তিতে দুষ্কৃতীদের খোঁজ চলছে।