প্রতীকি ছবি

মালদা: উত্তপ্ত মালদার রতুয়া থানার চাঁদমনি গ্রাম পঞ্চায়েত। বোমা ও গুলির সংঘর্ষ। জানা যাচ্ছে, তৃণমূল কংগ্রেসের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরেই এই ঘটনা। চাঁদমনি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বাড়িতে বোমাবাজি। বোমা আঘাতে আহত প্রধান সহ বেশ কয়েকজন। ঘটনাস্থলে রতুয়া থানার পুলিশ।

এই ঘটনায় আহত প্রধান সহ তিনজনকে রতুয়া গ্রামীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চাঁদমুনি ১নং গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান রবিউলের অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় নেতৃত্ব তাজিবুর রহমান(কালা), সারিজুল হক, জামালউদ্দিন(ফিট),সাদিকুল ইসলাম, মন্টুরা এলাকায় দল বিরোধী কাজ করছেন। প্রতিবাদ করেছিলেন তিনিও তাঁর দলবল। এরফলে দুইদিন আগে সংঘর্স হয়। রতুয়া থানাতে অভিযোগও করা হয়।

তারই প্রতিশোধ নিতে গতকাল গভীর রাতে তাঁর বাড়িতে বোমা ছোড়ে তাজিবুরও তার দলবল। ঘটনার অভিযোগ করা হয়। এরপরও রবিবার দুপুরে তাদের উপর পুনরায় হামলা করা হয়। ছোড়া হয় বোমা ও গুলি। তাজিবুরদের হামলার ফলে আহত প্রধান রবিউল সহ ইউসুফ আলী, মোঃ একরামুলরা। তাদের রতুয়া গ্রামীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তদন্তে পুলিশ। অভিযুক্তরা এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি। গ্রামে পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। আতঙ্কে রয়েছেন চাঁদমনি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সহ তার দলবল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।