স্টাফ রিপোর্টার,মালদহ: কাজ না-করে, অর্ধেক কাজ করে পঞ্চায়েত থেকে টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠল মালদহ তৃণমূল পরিচালিত পুরাতন মালদহের যাত্রাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে।

এমনই অভিযোগ করলেন, যাত্রাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য ও স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। তাঁরা প্রথমে পুরাতন মন্দির বিডিওর কাছে অভিযোগ জানায়। কিন্তু কোনও লাভ না হওয়ায় অবশেষে জেলাশাসকের দ্বারস্থ হন তাঁরা।

দলীয় প্রধানের বিরুদ্ধে দলের জনপ্রতিনিধি ও প্রাক্তন জনপ্রতিনিধিদের অভিযোগের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। অভিযোগের তদন্ত নিরপেক্ষভাবে করার দাবি জানিয়েছে বিজেপি।

পুরাতন মালদহের যাত্রাডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত। এই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য রাকেশ আলীর অভিযোগ রাস্তা নির্মাণের কাজ না করে প্রায় তিন কোটি টাকা তছরুপ করেছে প্রধান নুর হক। কোনও কাজ করা হয়নি আবার কোনও কাজ অর্ধেক অবস্থায় রেখে সেই টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে।
একই অভিযোগে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন পুরাতন মালদহের তৃণমূল নেতা মুখলেসুর রহমান।

স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ আনারুল ইসলাম প্রধান ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। যদিও প্রধান নুর হক বলেন সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন। দলীয় প্রধানের বিরুদ্ধে দলীয় সদস্যদের এই অভিযোগের ঘটনায় ব্যাপক অস্বস্তিতে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূলের মালদহ জেলা কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার বলেন অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রশাসন যা ব্যবস্থা নেওয়ার নেবে। ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছে বিজেপির মালদহ জেলা সহ-সভাপতি অজয় গঙ্গোপাধ্যায়।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।