স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: বৃহস্পতিবারই মালদহ জেলা পরিষদের মেন্টর পদ থেকে পদত্যাগ করেন প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ন চৌধুরী। বুধবার বিকেলে কৃষ্ণেন্দুবাবু হঠাত করেই এই পদ থেকে পদত্যাগ করেন। এরপর শুক্রবার কৃষ্ণেন্দু পন্থী ও নীহার পন্থী কাউন্সিলরদের নিয়ে ইংরেজবাজার পুরসভার অচলাবস্থা কাটাতে জরুরী বৈঠকের ডাক দিলেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভানেত্রী মৌসম বেনজির নুর।

জানা গিয়েছে দুটি পর্যায়ে বৈঠক হবে। এছাড়াও ২০১৫ সালে হেরে যাওয়া প্রার্থীদের নিয়েও বৈঠক করা হবে। প্রথমে ১থেকে ১৪নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলারদের সাথে বৈঠক করবেন। তারপর ১৫ থেকে ২৯নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলারদের বৈঠক করবেন। উল্লেখ্য ২৯আসন বিশিষ্ট এই পুরসভাতে তৃণমূল কংগ্রেসের ২৪জন কাউন্সিলার রয়েছে।

আরও পড়ুন : মুখ্যমন্ত্রীর সফর শেষেই পুলিশের ভুয়ো চাকরি চক্র ধরা পড়ল বর্ধমানে

এদিকে প্রাক্তন মন্ত্রী তথা প্রাক্তণ পুরপতি তথা তৃণমূল কংগ্রেসের দাপুটে নেতা কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ অনুগামী ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার প্রসেনজিৎ দাসকে নিরাপত্তারক্ষী দেওয়া হয়েছিল।কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত পুরসভার পুরপতির বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষর করার জন্য আজ নিরাপত্তারক্ষী সরিয়ে নিয়েছে প্রশাসন। কার্যত দলের অনুশাসন ভাঙার অপরাধে কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে রাজ্য নেতৃত্ব।

বুধবার বিকেলে ইংরেজ বাজার পৌরসভার ১৫ জন তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলর পৌরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা জানিয়ে এসডিওর কাছে চিঠি দেন। আর চিঠি ঘিরে তীব্র রাজনৈতিক জল্পনা তৈরি হয়। কেন এভাবে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কাউন্সিলররা অনাস্থা আনলেন তা নিয়ে চাঞ্চল্য় তৈরি হয়।