বনগাঁঃ  বিজেপির সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তৃণমূল কাউন্সিলরের। আর এই অভিযোগে উত্তপ্ত বনগাঁ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। বিজেপির জেলা সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার মতো মারাত্মক অভিযোগ এনেছেন শাসকদলের ওই কাউন্সিলর।

জানা গিয়েছে, গত ১৬ জুলাই বনগাঁ পুরসভার অনাস্থা ছিল। ভোট শেষে তৃণমূলের কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ফিরছিলেন ওই কাউন্সিলর। অভিযোগ, সেই সময় বিজেপির সহ-সভাপতির নেতৃত্বে একদল বিজেপি নেতা-কর্মী হঠাত করেই তাঁদের উপর চড়াও হয়। ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আক্রান্ত কাউন্সিলরের উপর চড়াও হয় বলেও অভিযোগ। আর সেই সময় ওই বিজেপি নেতা তাঁর শ্লিলতাহানী করে বলে অভিযোগ।

ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

ইতিমধ্যে অভিযুক্ত বিজেপির সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে স্থানীয় বনগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্ত কাউন্সিলর। যদিও ষড়যন্ত্র করে তাঁদেরকে ফাঁসানো হচ্ছে বলে পালটা মারাত্মক অভিযোগ করেছেন অভিযুক্ত বিজেপির জেলা সহ-সভাপতি। তাঁর দাবি, রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতে এবং বনগাঁ পুরবোর্ডকে টিকিয়ে রাখতেই একের পর এক অভিযোগ আনা হচ্ছে বিজেপির নামে। প্রয়োজনে তাঁরা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হবেন বলেও জানিয়েছেন। যদিও ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ। খতিয়ে দেখা হচ্ছে অভিযোগের সত্যতা। প্রয়োজনে অভিযুক্ত বিজেপি নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হতে পারে বলে খবর।