ডিস্ট্রিক্ট নিউজ ডেস্ক: নিজের গড়েই হেরেছেন পুরসভার অনাস্থায়৷ এবার বারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে উঠল তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ৷ মঙ্গলবারই কমিশনে নালিশ জানানো হয়েছে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের তরফে৷

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন অর্জুন৷ দল বদল করায় ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনে তৃণমূল কাউন্সিলররা৷ সোমবারই ভাটপাড়া পুরসভায় অনাস্থা ভোট ছিল৷ সেই ভোটে ২২-১১ ব্যবধানে পরাজিত হন গত ৯ বছর ধরে চেয়ারম্যান থাকা অর্জুন সিং৷

ভোটের আগে তিনি যদিও দাবি করেছিলেন তৃণমূল কাউন্সিলররা তাঁকেই ভোট দেবেন৷ কিন্তু বাস্তবে ঘটে উলটো৷ এর পরই অর্জুন সিং অনাস্থা ভোটকে প্রহসন বলে দাবি করেন৷ পরাজিত অর্জুনকে পুরভবন থেকে বের হওয়ার সময়ও সাসক দলের কর্মী, সমর্থকের বিক্ষোভের মুখে পড়েন৷

আরও পড়ুন: কংগ্রেসের যদি আলি থাকে, আমাদের আছে বজরঙ্গবলী: যোগী

অর্জুন সিং সোমবারই বলেছেন, জেলাশাসকের নির্দেশের পর চেয়ারম্যান নির্বাচনের ভোট হবে৷ সেখানে তাঁর জয় সময়ের অপেক্ষা৷ কারণ তৃণমূল কাউন্সিলররা তাঁকেই ভোট দেবেন৷ সোমবারের উত্তজনা প্রশমণে ভাটপাড়াপুরসভা অফিস এলাকায় মোতায়েন ছিল পুলিশ, ব়্যাফ৷ কমিশনের তরফেও জেলাশাসকের কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়৷

এরপরই মঙ্গলবার তাঁর বিরুদ্ধে স্থানীয় তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদের ফোন করে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠে৷ এক শিক্ষক নেতাকে হুমকি দিলে তিনি টিটাগড় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই কমিশনের দলত্যাগী অর্জুন সিংয়ের দ্বারস্থ তৃণমূল৷ জানিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতা সম্রাট তপাদার৷

তবে, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগই অস্বীকার করেছে বিজেপি৷ অর্জুন সিংয়ের দাবি, বারাকপুর লোকসভায় ভোটে হেরে যাবে এই ভয়ই মিথ্যা অভিযোগ করছে শাসক দল৷ অভিযোগ, পালটা অভিযোগ৷ আপাতত তৃণমূল বনাম অর্জুনের লড়াই তুঙ্গে৷