স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র এবারেও কংগ্রেসের দখলেই৷ গতবারের সাংসদ অধীর চৌধুরী এবারেও জিতবেন বলেই দেখানো হচ্ছে৷ আর নির্বাচনী লড়াইয়ে নেমে পড়েছে সবপক্ষ৷ এই কেন্দ্রে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী অপূর্ব সরকার৷

শুক্রবার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস কার্যালয় থেকে সুবিশাল মিছিল করে জেলা প্রশাসনিক ভবনে এসে মনোনয়ন পত্র প্রদান করলেন অপূর্ব সরকার। সূচনা পর্ব থেকেই মিছিলের নেতৃত্ব দেন পরিবহণ মন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেস পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারী। এছাড়াও মিছিলে পা মেলান জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সুব্রত সাহা, জেলা পরিষদের সভাধিপতি মোশারফ হোসেন, মহিলা সভানেত্রী তথা জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ শাহনাজ বেগম সহ জেলা কংগ্রেস নেতৃত্ব ও বহু কর্মী সমর্থক।

রাজ্যের অন্যতম নজরকাড়া লোকসভা কেন্দ্রে বহরমপুর। এবার এখানে লড়াই চারবারের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীর সঙ্গে তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব সরকারের। গত লোকসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে সর্বাধিক ভোটে বিজয়ী হয় কংগ্রেসের অধীর রঞ্জন চৌধুরী। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইছেন এবার রাজ্যে ৪২টি আসনের সবকটি নিজের ঝুলিতে পুরতে৷ তাই বহরমপুর ঘিরে চলছে প্রবল নির্বাচনী লড়াই৷ বহরমপুরে কংগ্রেস প্রার্থীর বিরুদ্ধে কোনও প্রার্থী দেয়নি বামফ্রন্ট৷ তবে লড়াইয়ে রয়েছে বিজেপি৷

মনোনয়ন পত্র প্রদান করার পর তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব সরকার জানান, বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রে এবার জয় নিশ্চিত৷ এই মিছিলে মানুষের উৎসাহ ছিল প্রবল৷ তাই প্রমাণ হয়ে যায় জয় যে নিশ্চিত৷ এতো মানুষের মিছিল এবং সমর্থন রেকর্ড তৈরি করেছে। অধীর চৌধুরী চৌধুরীর পরাজয় এবার নিশ্চিত।