স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: তৃণমূল পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপির স্মারকলিপি দেওয়াকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটল। তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে দু’পক্ষের কমপক্ষে দশ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েক জনের আঘাত গুরুতর বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

কাটমানি ইস্যুতে উত্তাল গোটা রাজ্য৷ জেলায় জেলায় তৃণমূল নেতাদের থেকে টাকা ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন সাধারণ মানুষ৷ হাতে গরম ইস্যু পেয়ে বিজেপিও সেই বিক্ষোভে সামিল হয়েছে৷ শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে পখন্না গ্রাম পঞ্চায়েতে স্মারকলিপি দেওয়ার কথা ছিল। স্মারকলিপি জমা পড়ার আগেই সংঘর্ষে জড়ায় দুপক্ষ। তৃণমূলের দাবি, ডেপুটেশনের নামে বিজেপি বাইরে থেকে দুষ্কৃতিদের নিয়ে এসে তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে। তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়েও হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ।

সংঘর্ষে আহত আফতাব হোসেন নামে এক তৃণমূল কর্মী বলেন, আমরা পার্টি অফিসে বসে ছিলাম, তখনই বিজেপির লোকেরা আমাদের উপর আক্রমণ করে। রাজেশ শেখ নামে এক তৃণমূল কর্মীরও একই বক্তব্য৷ পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

যদিও বিজেপি নেতৃত্বের তরফে তৃণমূলের অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। তাদের দাবি তৃণমূল পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকায় এই মুহূর্তে বিশাল পুলিশ বাহিনী পখন্না এলাকায় টহলদারি শুরু করেছে।