তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা। তারপরই বাঁকুড়ার দুই কেন্দ্রের ভোট গণনা শুরু হবে। জেলার বাঁকুড়া ও বিষ্ণুপুর এই দুই লোকসভা কেন্দ্রের গণনা হবে বাঁকুড়া খ্রিশ্চান কলেজ ও বিষ্ণুপুর কেজি ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউটে।

ইতিমধ্যে ভোট শেষে ইভিএম জমা রাখার দিন বাঁকুড়ার ১৪ টি ও বিষ্ণুপুরের নয়টি স্ট্রং রুমে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গণনার দিন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ছ’টায় স্ট্রং রুম খোলা হবে। সেই সময় প্রতিদ্বন্দ্বী সব ক’টি রাজনৈতিক দলের সদস্যদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার কোটেশ্বর রাও জানিয়েছেন, প্রতিটি গণনা কেন্দ্রে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকছে। নিরাপত্তায় ১১০০ বাহিনী ও ১৫০ জন পুলিশ আধিকারিক উপস্থিত থাকছেন। একই সঙ্গে গণনার সময় নিরাপত্তা কর্মীরা যেমন উপস্থিত থাকছেন তেমনি ওয়াচ টাওয়ার থেকেও নজরদারি চালানো হবে বলে তিনি জানান।

ভোট গণনা উপলক্ষে রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যেও ব্যস্ততা তুঙ্গে। জেলা তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে বাঁকুড়া কেন্দ্রে রাত জেগে স্ট্রং রুম পাহারা দিতে ১২ জন দলীয় কর্মীকে নিয়োগ করা হয়েছে। একইভাবে বিষ্ণুপুর কেন্দ্রেও কর্মীরা থাকছেন বলে জানা গিয়েছে। পিছিয়ে নেই বাম-বিজেপিও। তাদের দলের কর্মীরাও দলীয় নির্দেশ মেনে এই কাজে যুক্ত আছেন বলে সংশ্লিষ্ট দলগুলির তরফে জানানো হয়েছে।

এবার বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রে ১৫ জন ও বিষ্ণুপুরে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। বাঁকুড়ায় কংগ্রেস প্রার্থী না দিলেও বিষ্ণুপুরে তারা লড়াইয়ের ময়দানে রয়েছে। তবে এতোসবের পরেও এই দুই কেন্দ্রে লড়াই মূলত ত্রিমুখী। তৃণমূল-বিজেপি ও সিপিএমে এই তিন দলের লড়াইয়ে শেষ হাসি কে হাসবেন, তা জানার জন্য এখন আরও বেশ কয়েক ঘণ্টা তো অপেক্ষা করতেই হবে।