স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: ফের বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁকে কালো পতাকা দেখানো হল৷ তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগও তোলা হয়েছে৷ তাঁর গাড়ির উপরেও হামলা চালানোর চেষ্টা করা হয়৷ ঘটনায় অভিযোগের তির তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থকদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার শশঙ্গা গ্রামে৷

প্রতারণা মামলায় অভিযুক্ত বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ৷ তাই আদালতের নিষেধাজ্ঞার জেরে বাঁকুড়ায় ঢোকার অনুমতি পাচ্ছেন না তিনি৷ অগত্যা বিষ্ণুপুর লোকসভার পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ বিধানসভা এলাকাতেই এখন প্রচারাভিযান চালাচ্ছেন৷ আর নিজের লোকসভায় প্রচার চালাচ্ছেন তাঁর স্ত্রী সুজাতা খাঁ৷

বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালেই পোলেমপুর, আলমপুর এলাকায় তাঁর প্রচারে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু জরুরী কাজে তিনি কলকাতায় চলে যাওয়ায় এদিন সকালের কর্মসূচী বাতিল হয়। পরে তিনি খণ্ডঘোষের শশঙ্গা এলাকায় প্রচারে যান৷ সেখানেই শশঙ্গা তৃণমূল পার্টি অফিসের সামনে সৌমিত্র খাঁয়ের গাড়ির উপর হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ জানিয়েছেন, এদিন শশঙ্গা এলাকায় তাঁর প্রচারাভিযান ছিল। প্রচারাভিযান সেরে এক কর্মীর বাড়িতে দুপুরে খাবার খেয়ে কর্মী সহ তিনি ফিরছিলেন৷ তখন শশঙ্গা গ্রামের রাস্তা দিয়ে সেই সময় বিজেপি কর্মীদের কয়েকজনকে তৃণমূল সমর্থকরা মারধর করে। একইসঙ্গে তাঁর গাড়ির উপর কালো পতাকা এবং তৃণমূলের পতাকা নিয়ে হামলা চালানো হয়।

তাঁর অভিযোগ, এই ঘটনার সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন খণ্ডঘোষ থানার পুলিশ। তাঁদের সামনেই তাঁর গাড়ির উপর হামলা চালানো হয়। এমনকি পুলিশ এই ঘটনায় খুশি হয়ে হাততালিও দেন। দাবি এদিন তাঁর সঙ্গে নিরাপত্তাকর্মীরা না থাকলে তিনি ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণের শিকার হতেন।

এই ঘটনার পরই সৌমিত্রবাবু সরাসরি খণ্ডঘোষ থানায় চলে যান। এরপর তিনি থানার সামনে বর্ধমান বাঁকুড়া রোডের উপর দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে ধর্নায় বসেন৷ পাশাপাশি এদিন থানার সামনে রাস্তার উপর বসে রীতিমত খণ্ডঘোষ থানার পুলিশকে উদ্দেশ্য করে গালিগালাজ করেন বলেও অভিযোগ। খণ্ডঘোষ থানার পুলিশকে খাঁকি উর্দি ছেড়ে শাড়ি এবং চুরি পড়ার নির্দেশ দেন সৌমিত্র খাঁ।

তিনি হুমকি দেন, এরপর যদি ফের তাঁর উপর কোনো হামলা হয় তাহলে তিনি কলকাতায় গিয়ে রাস্তায় শুয়ে পড়ে বিক্ষোভ দেখাবেন। তাঁর অভিযোগ, শশঙ্গা অঞ্চল তৃণমূল সভাপতি শ্যামল পাঁজার নেতৃত্বেই এদিন তাঁর ওপর হামলা চালানো হয়েছে। এদিন এব্যাপারে খণ্ডঘোষ থানায় শ্যামল পাঁজার বিরুদ্ধে এফআইআরও দায়ের করা হয় বিজেপির পক্ষ থেকে।

অন্যদিকে খোদ শশঙ্গা অঞ্চলের তৃণমূল সভাপতি শ্যামল পাঁজা জানিয়েছেন, এদিন তৃণমূল নয় এলাকার মানুষ কালো পতাকা নিয়ে সৌমিত্র খাঁকে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। তাঁকে এলাকা থেকে চলে যেতে বলেছেন। সৌমিত্র খাঁ শশঙ্গা অঞ্চলের জন্য একটা টাকাও খরচ করেনি। তাঁর বিরুদ্ধে বালির টাকা, চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। তিনি দাবি করেন, শশঙ্গা গ্রামের এক বাসিন্দার বাড়িতে মদ, মাংস খাওয়ানো হয়েছে। তাই এলাকার মানুষ তাঁকে কালো পতাকা দেখিয়ে এলাকা থেকে চলে যেতে বলেছেন।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV