বার্বাডোজ: ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে কটাক্ষ করে ভাজ্জির মজাদার টুইটের মোক্ষম জবাব দিলেন ক্যারিবিয়ান পেসার টিনো বেস্ট৷ যার জেরে জমে উঠল দুই তারকার টুইট যুদ্ধ৷

আরও পড়ুন: ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে জায়গা হল না গেইল-নারিনের

রাজকোটে ভারতের বিরুদ্ধে চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টে এক ইনিংস ও ২৭২ রানে আত্মসমর্পণ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ তার পরেই হরভজন সিং টুইটে অনুরাগীদের কাছে থেকে একটি বিশেষ বিষয়ে তাদের মতামত জানতে চান৷ সঙ্গে নিজেও ধারণাও শেয়ার করেন সর্দার৷

আরও পড়ুন: বিদায়ী ইনিংসে দুরন্ত শতরান গেইলের

টার্বুনেটর টুইটে লেখেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়েও সবার জন্য একটা প্রশ্ন করছি, ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই দলটা কী রঞ্জির প্লেট গ্রুপ থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে পারবে? এলিট থেকে তো পারবে না৷’

হরভজনের এমন টুইট ওয়েস্ট ইন্ডিজ সমর্থকদের মনে যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে, তা বোঝা যায় বেস্টের পাল্টা থেকেই৷ টিনো ভাজ্জির টুইটের জবাবে লেখেন, ‘হে ব্রো, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরজের সময় তো এমন উদ্ধত টুইট চোখে পড়েনি… যাই হোক তরুণ ছেলেরা শিখবে৷’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে বেস্ট ২৫টি টেস্টে ৪০.১৯ গড়ে ৫৭টি উইকেট নিয়েছেন৷ ক্যারিবিয়ান জার্সিতে ২৬টি ওয়ান ডে ম্যাচে তাঁর সংগ্রহ ৩৪.০২ গড়ে ৩৪টি উইকেট৷ ৬টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে বল হাতে নিয়ে বেস্ট ৬টি উইকেট পুরোছেন ঝুলিতে৷ টিনোর ফার্স্ট ক্লাস কেরিয়ার রীতিমতো ঈর্ষনীয়৷ ১২১টি প্রথম শ্রেনির ম্যাচে ৩৩০টি উইকেট নিয়েছেন তিনি৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.