নিউ ইয়র্ক: ভারত থেকে ব্যান হওয়ার পর থেকেই ক্রমেই নিজেদের সপক্ষে যুক্তি দিয়ে চলেছে টিকটক। পাশাপাশি ক্রমেই তারা বেজিং এর থেকে ক্রমেই দূরত্ব রাখা শুরু করেছে। পাশপাশি ভারতের দেখানো পথ ধরে ইতিমধ্যে আমেরিকাও টিকটক ব্যান করার পরিকল্পনা করেছে। তবে ইতিমধ্যে তাদের তরফে জানানো হয়েছে টিকটকের নিয়ম ভাঙার জন্য প্রায় ৪৯ মিলিয়ন ভিডিও ডিলিট করা হয়েছে।

জানানো হয়েছে মোট ভিডিওর প্রায় ১ শতাংশ ভিডিও ডিলিট করা হয়েছে। আর তা টিকটকের নিয়ম ভাঙার কারণেই করা হয়েছে। এমনটাই জানানো হয়েছে সংস্থার তরফে। এও জানানো হয়েছে ডিলিট হওয়া ভিডিও গুলির মধ্যে প্রায় এক তৃতীয়াংশ রয়েছে ভারতের।

আরও পড়ুন: গোটা বিশ্বে ‘স্তব্ধ’ TikTok

এছাড়াও রয়েছে পাকিস্তান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক ভিডিও। গালওয়ান সীমান্তে চিন ভারত সংঘর্ষের পরে যখন ভারতে টিকটক ব্যান করা হয় ঠিক তার পরেই সামনে আনা হয় এই রিপোর্ট। পাশপাশি ইতিমধ্যে টিকটকের প্রধান সংস্থা বাইটডান্স চিনের সঙ্গে দূরত্ব রাখতে শুরু করেছে।

ফাইল ছবি

জানানো হয়েছে টিকটকের তরফে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। তবে ভারতে ব্যানের পরে কার্যত যথেষ্ট সমস্যার মধ্যে পড়েছে এই অ্যাপ। তবে ফের গ্রাহকদের আকর্ষণ করার জন্য জানা গিয়েছে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তরফেও কার্যত হুংকার দেওয়া হয়েছে।

এমনিতেই করোনা মহামারীর পর থেকে কার্যত চিনের উপরে ক্ষুব্ধ আমেরিকা। আর এবারে চিনা অ্যাপ সেদেশেও ব্যান করার পরকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। এর ফলে ফের যে চিন যথেষ্ট সমস্যার মধ্যে পড়বে তা নিশ্চিত। তবে জানানো হয়েছে টিকটক নিজেদের তথ্য কাউকে দেয় নি। চিন কেও না।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ