নয়াদিল্লি: প্রকাশ্য দিবালোকে এক যুবককে গুলি করে খুন৷ যাকে খুন করা হয়েছে সে সোশ্যাল মিডিয়া টিকটকের অতি পরিচিত মুখ৷ মঙ্গলবার ভরসন্ধ্যায় খুনের ঘটনাটি ঘটে দিল্লির নজফগড় এলাকায়৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷

মৃত যুবকের নাম মোহিত মোর৷ আদতে সে হরিয়ানার বাসিন্দা৷ কর্মসূত্রে থাকে দিল্লিতে৷ টিকটকের বাইরে তাঁর আরও এক পরিচয় আছে৷ ২৪ বছরের মোহিত জিম ট্রেনার৷ সুদর্শন ও সুঠাম শরীরের মোহিত টিকটকে আসক্ত৷ পুলিশ তাঁর প্রোফাইল খতিয়ে দেখে জানতে পেরেছে টিকটকে মোহিতের ৫ লক্ষ ১৭ হাজার ফলোয়ার আছে৷ মাঝে মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ফিটনেস সংক্রান্ত নানা ভিডিও পোস্ট করত৷ অচিরেই সেগুলি ভাইরাল হয়ে যেত৷

পুলিশ জানতে পেরেছে, মঙ্গলবার বাড়ির কাছে একটি দোকানে যান মোহিত৷ বিকাল ৫টা নাগাদ ওই দোকানের সামনে বাইকে করে তিন অজ্ঞাতপরিচয় যুবক আসে৷ সোফায় বসে থাকা মোহিতকে খুব কাছ থেকে গুলি করে দুষ্কৃতীরা৷ পরপর ১৩টি বুলেট ছোড়া হয়৷ কিন্তু পাঁচটি গুলি লাগে মোহিতের শরীরে৷ গুলিবিদ্ধ হয়ে সোফা থেকে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে৷

গোটা ঘটনাটি সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে৷ তাতে এক হামলাকারীকে পরিস্কার দেখা গিয়েছে৷ বাকি দুই জনের মুখ অবশ্য হেলমেট দিয়ে ঢাকা ছিল৷ তদন্তকারী পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, মোহিত দোকানের ভেতর এক বন্ধুর সঙ্গে কথা বলতে ব্যস্ত ছিল৷ সেই সময় বন্দুক হাতে দোকানে ঢোকে হামলাকারী৷ নির্বিচারে গুলি চালাতে শুরু করে৷ মোট ১৩ রাউন্ড গুলি চলে৷ রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে মোহিত৷ ততক্ষণে বাইকে করে চম্পট দেয় হামলাকারী৷ ওদিকে মোহিতকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়৷

পুলিশ এখন মোহিতের টিকটক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখছে৷ পুলিশের অনুমান, টাকা নিয়ে ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে এই খুন৷ সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাকাউন্ট গুলি খতিয়ে দেখে সেই শত্রুর হদিশ পেতে চাইছে পুলিশ৷