নয়াদিল্লি:  গত কয়েকদিন ধরে লাগাতার উষ্ণতার পারদ চড়ছে। যাতে কার্যত নাজেহাল অবস্থা বাংলার। শুধু বাংলাই নয়, উষ্ণতার পারদ চড়ছে দেশের একাধিক প্রান্তেও। যার ফলে হিটস্ট্রোকের মতো ঘটনাও ঘটছে। এই অবস্থায় এবার কিছুটা হলেও স্বস্তির বার্তা দিল দিল্লির মৌসম ভবন। দেশের একাধিক প্রান্তে ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস মৌসম ভবনের। আবহাওয়াবিদের পূর্বাভাস, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামীকাল সোমবার থেকেই ঝড়বৃষ্টির পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। একই সঙ্গে কমতে পারে তাপমাত্রাও। ফলে কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবে দেশবাসী।

পড়ুন আরও- ফের বঙ্গোপসাগরে তৈরি হচ্ছে উচ্চচাপ বলয়, ব্যাপক ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস

মৌসম ভবনের পূর্বাভাস, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিপাতের আশাঙ্কা রয়েছে। বেশ কিছু জায়গায় ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়াও বইতে পারে বলে জানাচ্ছে দিল্লির হাওয়া অফিস। ব্যাপক ঝড়বৃষ্টি হতে পারে পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, দিল্লি, পশ্চিম মধ্যপ্রদেশ, বিদর্ভ, দিল্লি, তেলঙ্গানা, পুদুচেরি, ঝাড়খণ্ড সহ একাধিক এলাকায়। এছাড়াও পশ্চিমবঙ্গ, ওডিশা, অন্ধ্রপ্রদেশেও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা জারি করেছে মৌসম ভবন।

পড়ুন আরও- কমছে দহনজ্বালা, স্বস্তির সম্ভাবনা শিগগিরই

শুধু মৌসম ভবনই নয়, আগামীকাল সোমবার থেকেই ঝড়বৃষ্টির পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে পূর্বাভাসে জানিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস। আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস জানিয়েছেন, আগামীকাল সোমবার থেকে রাজ্যের কিছু প্রান্তে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আপাতত তাপপ্রবাহেরও সম্ভাবনা নেই বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। কারণ বিহারের উপরে ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ায় মেঘ তৈরি হয়েছে। ফলে পশ্চিম দিক থেকে বাংলায় গরম হাওয়া ঢুকছে না। আর তা না ঢোকার জন্যেই তাপপ্রভাহ নেই বলেই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

 

এছাড়াও হাওয়া অফিসের তরফে আরও জানানো হয়েছে যে, ফের বঙ্গোপসাগরে তৈরি হচ্ছে উচ্চচাপ বলয়। এই উচ্চচাপ বলয়ই বাংলায় স্বস্তির আশা দিচ্ছে। এই সপ্তাহে তাই মাঝামাঝি পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আর সেই বৃষ্টির পরিবেশ আগামীকাল সোমবার থেকেই তৈরি হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।