স্টাফ রিপোর্টার, গাইঘাটা: গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শনিবার রাতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের গোপালপুর মোড় থেকে তিন মাদক পাচারকারীকে গ্রেফতার করল গাইঘাটা থানার পুলিশ৷ ধৃতদের কাছ থেকে প্রায় ১০ লিটার নিষিদ্ধ তরল মাদক কোডেইন মিকচার আটক করেছে পুলিশ৷ রবিবার দুপুরে ধৃতদের বনগাঁ আদালতে তোলা হলে তাদের জামিন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত অসিত চন্দ্র , অসীম আচার্যর বাড়ি গাইঘাটা এলাকায় এবং অপর ধৃত রণজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি ঝাড়খণ্ডে। প্রাথমিক তদন্ত থেকে পুলিশের অনুমান, নিষিদ্ধ তরল মাদক বাংলাদেশে পাচার করা হচ্ছিল৷ ধৃতদের জেরা করে এবিষয়ে বাকি তথ্য জানার চেস্টা করছেন তদন্তকারীরা৷

গরু, মোষ কিংবা সোনা পাচারের পাশাপাশি ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকা দিয়ে চলছে কোরেক্স, ফেন্সিডিল বা তরল মাদক কোডেইন মিকচার পাচারের অবৈধ রমরমা কারবার। পুলিশ সূত্রে খবর, বিগত কয়েক বছরে বনগাঁ ও বসিরহাট সীমান্ত এলাকা থেকে কোডেইন মিকচার পাচার করতে গিয়ে গ্রেফতার হয়েছেন বেশ কয়েকজন পাচারকারী।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.