স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: লোকসভা নির্বাচনী পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত পশ্চিমবঙ্গ৷ বসিরহাট থেকে ভাটপাড়া, বিভিন্ন জায়গাতে শাসকদলের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা৷ তাই বাংলার নবনির্বাচিত সাংসদ এসএস আলুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল ভাটপাড়ায় পাঠিয়েছিল বিজেপি৷

সোমবার ভাটপাড়া ঘুরে গিয়ে এই প্রতিনিধি দল রিপোর্ট পেশ করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকে৷ এই রিপোর্টে ভাটপাড়ায় বিজেপি কর্মীদের আক্রমণের কথা জানিয়ে কেন্দ্রায় হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আলুওয়ালিয়া৷

গত বৃহস্পতিবার ভাটপাড়াতে নিহত হন ধরমবীর সাউ ও রামবাবু সাউ নামের দুই ব্যক্তি৷ বিজেপির অভিযোগ পুলিশের গুলিতেই মারা গিয়েছেন এই দুই বিজেপি কর্মী৷ মৃতদেহ নিয়ে শুক্রবার মিছিল করে বিজেপি৷ মিছিল থেকে উঠছে ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি৷

মিছিলের নেতৃত্বে রয়েছেন ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং, ভাটপাড়ার বিধায়ক তথা অর্জুন-পুত্র পবন সিং এবং সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া প্রাক্তন তৃণমূল বিধাক তথা অরজুনের ভগ্নিপতি সুনীল সিং৷ এই মিছিলকে ঘিরেও রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় ভাটপাড়া৷ শাসক ও বিজেপি সংঘর্ষ শুরু হয়৷ পুলিশ গেলে পুলিশকে দেখেও ইঁট ছোঁড়ে উত্তেজিত জনতা৷

গত সপ্তাহে ভাটপাড়ায় দু’জন নিহত হওয়ার পরেই আলুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে তিন সদস্যের দলকে রাজ্যে পাঠান অমিত শাহ৷ রিপোর্টে কী রয়েছে, তা নিয়ে বিস্তারিত ভাবে কিছু প্রতিনিধি দলের কোনও সদস্যই৷ সংবাদমাধ্যমকে আলুোয়ালিয়া বলেন, ‘‘কি রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত বলতে পারবো না৷ তবে এটুকু বলতে পারি নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য করার কথা আমরা বলেছি৷’’

সূত্রের খবর, লোকসভা ভোটের আগে ও পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি কর্মীদের খুনের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে রিপোর্টে৷ পাশাপাশি রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির কতটা খারাপ জায়গাতে রয়েছে তাও রিপোর্টে রয়েছে৷