স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: ফের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে আটক করা হল জেএমবি’র তিন কুখ্যাত দুষ্কৃতীকে। তাদের কাছ থেকে বই এবং প্রচুর পরিমাণে লিফলেট উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার মালদহ জেলার পার্শ্ববর্তী ভারত বাংলাদেশ সীমান্তের বাংলাদেশের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বকচর এলাকায়। এদিন ধৃতদের আটক করে বাংলাদেশের রেপিড অ্যাকশন বাহিনী। এদিকে সীমান্তের ওপারে তিন জঙ্গি আটক হওয়ার খবরে ভারত- বাংলাদেশ সীমান্ত জুড়ে জারি করা হয়েছে চরম লাল সর্তকতা।

জানা গিয়েছে, ধৃতদের নাম মনিরুল ইসলাম (৩০), হোসেন আলি (৩৯), জিয়াউল হক (৩৩)। ধৃতদের সবার বাড়িই মালদহ জেলার পার্শ্ববর্তী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায়। তিনজন আটক হওয়ার পরই সীমান্তে নিরাপত্তা আরও দ্বিগুণ করেছে বিএসএফ ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ। বাংলাদেশের রেপিড অ্যাকশন বাহিনীর পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে প্রত্যেকেই জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য। গোপন একটি ডেরায় বসে তারা বৈঠক করছিল।

এদিন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালায় বাংলাদেশ রেপিড অ্যাকশন বাহিনী। তাঁদের ধারণা, ধৃত এই তিনজনের দলে আরও বেশ কয়েকজন ছিল। তারা রেপিড টিমের ধাওয়া খেয়ে ভারতের দিকে পালাতে পারে। এই ঘটনার পরই সীমান্তে নিরাপত্তা দ্বিগুণ করেছে বিএসএফ। পাশাপাশি বাংলাদেশ সীমান্ত জুড়ে সতর্কতা বাড়িছে বাংলাদেশ বিজিবি। মালদহ মুর্শিদাবাদ জেলাকে করিডোর করে দীর্ঘদিন ধরেই এই সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে জেএমবি জঙ্গিরা। যা প্রশাসনের কাছে মাথা ব্যথার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই ঘটনার পর সীমান্ত জুড়েই দফায় দফায় চলছে বি এস এফের টহলদারি। যদিও গোটা ঘটনা নিয়ে বিএসএফ ও পুলিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।