স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার জগদ্দলের অভিষেক চৌবে ওরফে প্রিন্স হত্যা মামলায় সাজা ঘোষণা করল বারাকপুর মহকুমা আদালত৷ আদালতের ফাস্ট ট্র্যাক চতুর্থ কোর্টের বিচারক তাপস কুমার মিত্র এদিন সাজা ঘোষণা করেন৷ শুনানি শেষে বুধবার তিন অভিযুক্ত মহম্মদ উকিল, জাহিদ হোসেন এবং মহম্মদ সরফরাজের সাজা ঘোষণা করা হয়৷

তিনজনেরই আমৃত্যু যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দিল বারাকপুর মহকুমা আদালত৷ ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে অপহৃত হয়ে খুন হয় অভিষেক চৌবে ওরফে প্রিন্স। বারাকপুর মহকুমা আদালতের ফাস্ট ট্র্যাক চতুর্থ কোর্টের বিচারক তাপস কুমার মিত্রের এজলাস এই ঘটনায় আদালতের এক বছর কার্যকাল মেয়াদের মধ্যেই তিন দুষ্কৃতীর সাজা ঘোষনা করল।

যদিও বারাকপুর মহকুমা আদালতের এই রায়ে হতাশ মৃত প্রিন্সের পরিবারের সদস্যরা। তারা প্রত্যেকে তিন কুখ্যাত দুষ্কৃতীর ফাঁসির সাজার আবেদন করেছিলেন আদালতের কাছে৷ কিন্তু দুষ্কৃতীরা কম বয়সী হওয়ায় আদালত তিন জনকেই আমৃত্যু কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন। এছাড়াও প্রত্যেক দুষ্কৃতীকে ৩ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা করে জরিমানা ধার্য করেছে আদালত৷

মৃত প্রিন্সের পরিবারের সদস্যরা সংবাদ মাধ্যমকে জানান, তারা এই রায়ের বিরুদ্ধে আগামীদিনে সুপ্রিম কোর্টে যাবেন৷ তিন দুষ্কৃতীর ফাঁসি চাইছেন মৃত প্রিন্সের পরিবারের সদস্যরা। আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় বলেন, এই মামলায় প্রচুর ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রমাণপত্র ব্যবহার হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি এই মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে। দুষ্কৃতীদের ফাঁসি চেয়েছিলাম আমরা। তবে মানবিক দিক বিবেচনা করে আদালত প্রত্যেকের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের নির্দেশ দিল৷