প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: রাস্তায় গাড়ি আটকে তোলাবাজি৷ এমন অভিযোগ বার বারই উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে৷ এবার গাড়ি থামিয়ে ব্যবসায়ীদের মারধর ও তোলাবাজির অভিযোগে গ্রেফতার তিনজন সিভিক ভলান্টিয়ার৷ ঘটনাস্থল বাগুইআটি থানা এলাকার রঘুনাথপুর৷

আক্রান্ত মাছ ব্যবসায়ীরা বাগুইআটি থানা এলাকার অর্জুনপুরের বাসিন্দা৷ ব্যবসায়ী সুকুমার রাজবংশীর অভিযোগ, শুক্রবার ভোররাতে ৬-৭ জন মাছ ব্যবসায়ী গাড়ি নিয়ে মাছ আনতে যাচ্ছিলাম৷ সেই সময় রাজারহাট পুরসভার কাছে তিন যুবক গাড়ি আটকায়৷ নিজেদেরকে সিভিক ভলান্টিয়ার বলে পরিচয় দেয় এবং পরিচয় পত্র দেখায়৷ গাড়িতে উঠার চেষ্টা করে৷ বলে তাদেরকে বাগুইআটি ছেড়ে দিতে হবে৷ তখন আমরা বলি গাড়ি সেদিকে যাবে না৷ এরপরই গাড়ি থেকে নামিয়ে আমাদেরকে মারধর করতে শুরু করে৷ ভয়পেয়ে পুলিশকে খবর দেই৷

তিনি আরও জানান, আমাদের একজনের কাছে প্রায় ৩০ হাজার টাকা ছিল৷ সেই টাকার ব্যাগ থেকে প্রায় ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ওই সিভিক ভলান্টিয়াররা৷ শুধু টাকা নিয়েই ক্ষান্ত হয়নি৷ আমাকে মারতে মারতে পুরসভা থেকে তেঘরিয়া পর্যন্ত নিয়ে যায়৷ মেরে আমার মাথা ফাঁটিয়ে দেয়৷ ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে চলে আসে পুলিশ৷ ঘটনাস্থল থেকেই দু’জন কে গ্রেফতার করা হয়৷ আর একজন টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়৷

পুলিশ সূত্রে খবর, তোলাবাজি ও মারধরের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ ধৃতদের নাম রাজীব চৌধুরী, রাজু ঘোষ এবং অভিষেক মণ্ডল৷ এরা প্রত্যেকেই বাগুইআটি ট্রাফিক গার্ডের সঙ্গে যুক্ত। তবে যে সময় ওই ঘটনাটি ঘটেছে, সে সময় তারা কেউ ডিউটিতে ছিল না৷ ধৃতদের বিরুদ্ধে মারধর, ছিনতাই ও জোর করে আটকানোর জন্য ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪১, ৩২৩, ৩২৪,৩৭৯ ধারায় মামলা করা হয়েছে। তাদেরকে আজ বারাসত আদালতে তোলা হবে।