স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মহিলাদের জন্য কলকাতা সুরক্ষিত নয়৷ ফের রাতের কলকাতায় ধর্ষণের ঘটনা ঘটল৷ ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শহরে৷ বিউটি পার্লারে কাজ দেওয়ার নাম করে তরুণীকে গণধর্ষণ৷ এবার ঘটনাটি ঘটেছে পার্ক স্ট্রিট থানার কিড স্ট্রিটে৷ এই ঘটনায় এক মহিলাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

তিলজলা থানায় এক তরুণী লিখিত অভিযোগ করেন,তপসিয়ার এক মহিলা তাকে বিউটি পার্লারে কাজ দেওয়ার প্রলোভন দেখান৷ ওই মহিলার সঙ্গে তিনি পার্ক স্ট্রিট থানার কিড স্ট্রিটে যান৷ সেই রাতে কয়েকজন যুবক জোড় করে তাকে গণধর্ষণ করে৷ এবং গণধর্ষণের সময় দুই মহিলা সেই ছবি ক্যামেরা বন্দী করে৷ অভিযোগকারী তরুণী পার্ক স্ট্রিট থানায় বিষয়টি জানানোর কথা বললে,তাকে ভয় দেখানো হয়৷ ধর্ষণের ভিডিও টি দেখিয়ে বলা হয়, পুলিশকে জানালে সব জায়গায় ওই ভিডিওটি চলে যাবে৷ সঙ্গে সঙ্গে তা ভাইরাল হয়ে যাবে৷ এভাবে তরুণীকে ব্লাক মেল করা হয়৷

অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতে পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে এক মহিলাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করে৷ রবিবার ধৃতদের আলিপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদেরকে পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন৷ এদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ অভিযুক্ত বাকি আরও দু’জনের খোঁজ চালাবে৷ এই চক্রের সঙ্গে আর কে কে জড়িত আছে তাও খতিয়ে দেখা হবে৷

এর আগেও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা এক মহিলাকে শহরে গণধষর্ণ এর অভিযোগ উঠেছিল৷ সেদিন রাতে ওই মহিলা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার বোনের ছেলেকে দেখে রাত ১২ টা নাগাদ পার্কসার্কাস স্টেশনে আসেন৷ শৌচকর্ম করার জন্য স্যার গুরুদাস হল্ট স্টেশনের দিকে যান৷ তখনই তাঁকে রেললাইনে গণধষর্ণ করে বলে অভিযোগ৷ তাঁর চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে দুষ্কৃতিরা পালিয়ে যায়৷