জেরুজালেম: তীব্র জাতীয়তাবাদ নীতি দিয়ে বারবার ক্ষমতায় থাকা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু সরকারের বিরুদ্ধেই ক্ষোভ আছড়ে পড়ল ইজরায়েলে। করোনা হামলার কারণে ধাক্কা খেয়েছে অর্থনীতি। অথচ তেমন হামলা হয়নি ইজরায়েলে। কেন এই অবস্থা ? প্রশ্ন তুলে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী আন্দোলনে নামলেন তেলআভিব শহরে।

বিবিসি ও আল জাজিরা জানাচ্ছে, করোনা পরিস্থিতিতে সরকার অর্থনৈতিক মন্দা কাটিয়ে উঠতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না, এই অভিযোগে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ তেল আভিবের রবিন স্কোয়ারে কয়েক হাজার আন্দোলনকারী বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।

তাদের দাবি, করোনাকালে সরকারের ঘোষণা করা ভর্তুকি দিতে দেরি হচ্ছে। আন্দোলনকারীদের মধ্যে তরুণ ও মধ্যে বেশিরভাগই ছোট ব্যবসায়ী। বিবিসি জানাচ্ছে, করোনার হামলায় অনেকেই কাজ হারিয়েছেন।চরম অর্থনৈতিক দুরাবস্থায় শেষ পর্যন্ত রাস্তায় নেমেছেন বিক্ষোভকারীরা। অভিযোগ,স রকারি প্রকল্পের টাকা দিতে দেরি করায় দুর্ভোগ আরও বেড়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বিক্ষোভকারীদের দাবি মেনে নেয়ার কথা জানালেও আন্দোলন থামছে না। বরং সেটি দ্রুত বাড়ছে। এমনই জানাচ্ছে আল জাজিরা। রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে মার্চের মাঝামাঝি থেকে করোনার হামলা ঠেকাতে লকডাউন জারি করা হয়। অনেকে কর্মহীন হন।ফলে ইজরায়েলে বেকারত্ব ২১ শতাংশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটার পরিসংখ্যান বলছে, করোনাভাইরাস হামলায় এখনও পর্যন্ত ৩৫৪ জন মারা গেছেন ইজরায়েলে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ