ওয়াশিংটন: ২০১১সালেই গোপন ডেরায় ঢুকে মেরে ফেলা হয়েছিল ৯/১১-র মাথা তথা গোটা বিশ্বের ত্রাস ওসামা বিন লাদেনকে৷ এই জঙ্গিনেতাকে হত্যা করার ছক কষেছিল মার্কিন সেনার একটি দল৷ সেই দলটির একজন অন্যতম প্রধান ছিলেন মার্কিন নৌবাহিনী ‘সেল’-র প্রাক্তন নৌসেনা রবার্ট ও’নিল৷ লাদেনকে হত্যা করতে যাওয়ার আগের দিনগুলি কিভাবে কেটেছিল তাঁর! সেই বিষয়ই এবার মুখ খুললেন তিনি৷

তিনি জানান, লাদেনকে খতম করার মিশনটা খুব একটা সহজ ছিলনা৷ তাঁরা ঠিক করেই নিয়েছিলেন এটি প্রকৃতপক্ষে একটি ‘ওয়ানওয়ে মিশন’ ছিল৷ অর্থাৎ তাঁরা এই মিশনে যুদ্ধ করে ফিরে আসতে পারবেন কিনা সেই বিষয়ে একেবারেই আশাবাদী ছিলেন না কেউই৷ এমনকি তিনি তাঁর ছেলে মেয়েদের জন্য তাঁর নিজের জীবনের শেষ উপহার হিসেবে বেশ কিছু জিনিস দিয়ে গিয়েছিলেন৷ কারণ তিনি জানতেন, এই ভয়ংকর মিশন থেকে ফিরে আসার আর কোনও সম্ভাবনায় নেই৷ দলের সকলেই মানসিকভাবে প্রস্তুতও ছিলেন৷

আরও পড়ুন: লাদেনের নামে আধার কার্ড বানাতে গিয়ে পুলিশের জালে মানসুরি

তবে, এই পরিস্থিতির মোকাবিলায় তিনি এক মুহূর্তের জন্যও ভয় পেয়ে সরে আসেননি৷ বরং দৃঢ় মনোবল নিয়ে এগিয়ে গিয়েছেন লক্ষ্যে৷ এমনকি তাঁর বাবার সঙ্গেও এই মিশনে যাওয়ার আগে তাঁর কথা হয়৷ সেই কথোপকথনে তাঁর বাবা ধরে নিয়েছিলেন যে তাঁর ছেলে হয়তো আর কোনওদিন ফিরে আসবেনা৷ যথেষ্ট ভেঙে পড়েছিলেন সেদিন রবার্টের বাবাও৷ রবার্ট তাঁর বাবাকে সান্ত্বনা দেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টাও করেন৷

অবশেষে সেই দিনটি আসে৷ বাছাই করা সেরা কিছু সেনা নিয়ে এই যাত্রা শুরু হয়৷ হেলিকপ্টার থেকে লাদেনের বাড়ির ছাদে নেমে আসতে আসার নির্দেশ পেয়ে তাঁরা এগিয়ে যান লক্ষ্যপূরণের উদ্দেশ্যে৷ সেই বাড়িরই একটি তলাতে লুকিয়ে ছিল লাদেন৷ হাতেনাতে ধরা পড়ার পরেও নিজেকে আত্মসমর্পণ করেনি৷ এরপরই রবার্ট তাকে লক্ষ্য করে গুলি করেন৷ আর সেই গুলির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বিশ্বের ত্রাস ওসামা বিন লাদেন৷

রবার্ট ও’নিল তাঁর বই ‘The Operator: Firing the shots that killed Bin Laden’-এ লাদেনকে হত্যা করার বিষয়টি বিশদে ব্যাখ্যা করেন৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV