নিউজ ডেস্ক: ১ ফেব্রুয়ারি ফের সাধারণ বাজেট পেশ করবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন৷ এর আগে অবশ্য তিনি আরও দুটি বাজেট পেশ করেছেন। তিনিই দ্বিতীয় মহিলা যিনি এদেশে বাজেট পেশ করেন৷ এর আগে ইন্দিরা গান্ধীই একমাত্র মহিলা যিনি সাধারণ বাজেট পেশ করেছেন।

এবার একটু পিছন ফিরে দেখে নেওয়া যাক আগে কারা বাজেট পেশ করেছেন৷ স্বাধীন ভারতে আর কে সনমুখম চেট্টি প্রথম সাধারণ বাজেট পেশ করেন১৯৪৭ সালের ২৬ নভেম্বর ৷

সেই বাজেট ছিল ১৫ অগস্ট ১৯৪৭ থেকে ৩১ মার্চ ১৯৪৮ পর্যন্ত সময়কালের জন্য৷ জন মাথাই প্রজাতন্ত্র ভারতে প্রথম বাজেট পেশ করেন ১৯৫০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি৷

মোরারজি দেশাই সর্বাধিক বাজেট ( অন্তর্বর্তী বাজেট সহ ) পেশ করেছেন৷ তাঁর করা ১০টি বাজেটের মধ্যে দুটি বাজেট পেশ করেছিলেন তিনি একেবারে তাঁর জন্মদিন – ২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৪ এবং ২৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৮৷

জহরলাল নেহরু, ইন্দিরা গান্ধী এবং রাজীব গান্ধী যারা প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন সাধারণ বাজেট পেশ করেছিলেন কারণ সেই সময় তাঁদের হাতে ছিল অর্থমন্ত্রক ৷ অন্যদিকে মোরারজি দেশাই, চরণ সিং, ভিপি সিং এবং মনমোহন সিং যারা আগে অর্থমন্ত্রী হলেও পরবর্তীকালে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন৷

আবার আর বেঙ্কটরামন এবং প্রণব মুখোপাধ্যায় দুই অর্থমন্ত্রী পরবর্তী সময়ে দেশের রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন৷ ১৯৭৩-৭৪ সালে পেশ হওয়া বাজেটকে ‘কালা বাজেট’ অ্যাখ্যা দেওয়া হয়েছিল ৷

যেহেতু ওই বারে ৫৫০ কোটি টাকার ঘাটতির বাজেট করা হয়েছিল৷ অন্যদিকে পি চিদাম্বরমের ১৯৯৭-৯৮ বাজেটকে স্বপ্নের বাজেট অ্যাখ্যা দেওয়া হয়েছিল৷ যেহেতু সেবার অর্থনৈতিক সংস্কারের রাস্তা দেখিয়ে আয়কর এবং কর্পোরেট কর কমানো হয়েছিল, তুলে দেওয়া হয়েছিল সারচার্জ৷

এছাড়া কেন্দ্রে বাজেট পেশ করেছেন এনডি তিয়ারি, এসবি চবণ,মধু দণ্ডবতে, যশবন্ত সিনহা, যশোবন্ত সিং অরুণ জেটলি প্রমুখেরা৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.