মুম্বই: টেলিকম দুনিয়ায় যুদ্ধ এখনও জারি আছে। কখনও এগিয়ে আসছে জিও, কখনও আবার এয়ারটেল। মাঠে নেমে পড়েছে বিএসএনএলও। তবে এসবের মাঝেই TRAI ঘোষণা করল যে সেপ্টেম্বরে কোন সংস্থা সবথেকে বেশি নেট স্পিড দিয়েছে। আর সেই তালিকার শীর্ষে নেই জিও। নেই এয়ারটেলের মত জনপ্রিয় সংস্থাও। সবাইকে অবাক করে সবথেকে বেশি 4G স্পিড দিয়েছে ‘আইডিয়া’। শনিবার এমনটাই জানানো হয়েছে TRAI-এর তরফে।

জানা গিয়েছে, আইডিয়ার 4G আপলোড স্পিড সেপ্টেম্বরে গড়ে ছিল ৬.৩০৭ এমবিপিএস। স্পিড উঠেছিল ৮.৭৪ এমবিপিএস পর্যন্ত। TRAI তাদের MySpeed অ্যাপের মাধ্যমে এই স্পিড দেখে। গত এক বছরে নতুন ৫০,০০০ ব্রডব্যান্ড সাইট এনেছে আইডিয়া। ৫৮৮৮ শহরে পরিষেবা নতুন করে চালু করেছে এই সংস্থা।

এর আগে অগাস্টের রিপোর্টে দেখা যায়, 4G ও 3G ইন্টারনেট স্পিডে এগিয়ে ছিল এয়ারটেল। আইডিয়া আর ভোডাফোন ছিল দ্বিতীয় স্থানে। জিও ছিল চতুর্থ স্থানে। জিও’র গড় ডাউনলোড স্পিড ৫.৮১ এমবিপিএস।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।