চা (Tea) খাওয়া অভ্যেস আমাদের অনেকেরই আছে। অতিরিক্ত কাজের চাপ সামাল দিতে, সকালে ঘুম থেকে উঠে বা নিছকই আড্ডার মাঝে চায়ের কাপে চুমুক এক অতি সাধারণ অভ্যাস। বাড়িতে কোনো অতিথি এলে, বা হঠাৎ করে বন্ধুরা চলে এলে তাদের অ্যাপায়নে প্রধান ভূমিকা নেয় চা। কিন্তু চা খাওয়ার বিষয়েও স্বাস্থ্যের (Health) দিকে নজর দেওয়া প্রয়োজন। সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে আমরা খেতে পারি গ্রিন টি (Green Tea)। অবশ্যই চিনি ছাড়া। গ্রিন টিতে থাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidants)। গ্রীন টি ওজন কমানোর পাশাপাশি হার্টের রোগ (Heart Disease) প্রতিরোধ করতে ও ক্যান্সার (Cancer) প্রতিরোধে সাহায্য করে।

এছাড়াও গ্রীন টির আছে আরও অনেক শারীরিক গুণাগুণ (Health Benefits) সম্প্রতি এক গবেষণায় পাওয়া গেছে যে করোনা (corona) প্রতিরোধ করতে পারে গ্রীন টি। “RSC Advances” নামক জার্নালে (Journal) প্রকশিত হয়েছে এই গবেষণা রিপোর্ট। গবেষণা অনুযায়ী গ্রীন টিতে গ্যালোকাটেকিন (Gallocatechin) নামক একটি উপাদান পাওয়া যায় যা করোনা প্রতিরোধকারী ওষুধ তৈরিতে কাজে লাগে।

সোয়ানসি বিশ্ববিদ্যালয়ের (Swansea University) একজন গবেষক ড: সুরেশ মহানকুমার (Dr. Suresh MohanKumar) কীভাবে গ্রীন টি থেকে তৈরী ওষুধ এই মারণ ভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারে এই ব্যাপারে গবেষণা করছেন। তিনি বলেন ” প্রকৃতি থেকে পাওয়া বিভিন্ন উপাদান থেকে ওষুধ তৈরী দীর্ঘদিন ধরেই হয়ে আসছে। এবং আমাদের মনে হয়েছে যে সেই উপাদান গুলো থেকে কী মারণ করোনা ভাইরাসের কোনো ওষুধ তৈরী করা সম্ভব? গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল আমাদের জানিয়েছে গ্রীন টিতে থাকা গ্যালোকাটেকিন (Gallocatechin) নামক উপাদান করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে পারে। এবং এই উপাদানটি ক্লিনিকাল টেস্টের মাধ্যমে প্রমাণ করতে হবে যে কীভাবে এই উপাদান করোনা উপসম করতে কাজে লাগে।” বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিষয়ের প্রধান প্রফেসর অ্যান্ড্রু মরিস (Andrew morris) বলেন ” এই গবেষণা থেকে বোঝা যাচ্ছে যে প্রাকৃতিক উপাদান কীভাবে এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে আমাদের সাহায্য করছে। “

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.