শাওমি গত মার্চ মাসে ভারতে লঞ্চ করেছিল Redmi Note 10 সিরিজের তিনটি স্মার্ট ফোন। এর পাশাপাশি আবার সপ্তাহে শুরুর দিকে কোম্পানি এই সিরিজের আরও একটি স্মার্ট ফোনের রিটেল বক্স এবং বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য টুইট করে প্রকাশ করেছে। অনেকে মনে করেছেন সংস্থার টুইট করা স্মার্ট ফোনটি হতে পারে Redmi Note 10S। এর পাশাপাশি জল্পনা শুরু হয়েছে শাওমি এই সিরিজের তালিকায় যুক্ত করতে চলেছে Redmi Note 10T স্মার্ট ফোনটি।

খুব শীঘ্রই ভারতের বাজারে Xiaomi Redmi Note 10T স্মার্ট ফোনটি লঞ্চ করা হবে বলে টুইটারে উল্লেখ করা হয়েছে। @xiaomiui নামে একটি টুইটার অ্যাকাউন্টে এই তথ্য ভাগ করা হয়েছে। টিপস্টারের টুইট থেকে জানা গেছে ভারতে আগে লঞ্চ করা Redmi Note 10 5G স্মার্ট ফোনটির রিব্র্যান্ড হিসেবে লঞ্চ করা হচ্ছে Redmi Note 10T । শাওমি সংস্থা ভারতে সম্প্রতি লঞ্চ করেছে Redmi Note 10 4G স্মার্ট ফোনটি।

এর পাশাপাশি টিপস্টার একটি স্ক্রিনশট পোস্ট করে MIUI কোড উল্লেখ করেছে, যেখানে Redmi Note 10, Redmi Note 10 5G, এবং Redmi Note 10T মডেল রয়েছে। টিপস্টার টুইটে আরও উল্লেখ করে জানিয়েছে, Redmi Note 10 5G স্মার্ট ফোনের রিব্র্যান্ড হিসেবে Redmi Note 10T স্মার্ট ফোনটি লঞ্চ করা হলেও বৈশিষ্ট্যগুলো রয়েছে আলাদা। শাওমির আসন্ন ফোনটি নিজের দেশ চীনে প্রকাশ করা হয়েছিল।

বিশ্ববাজারে আসন্ন Redmi Note 10T থাকছে একটি ট্রিপিল রিয়ার ক্যামেরার ব্যবস্থা। অন্যদিকে চীনা বাজারে Redmi Note 10 তে রাখা হয়েছে ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ। অন্যান্য বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে একটি ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে পরিষেবা। প্যানেল রেজোলেউশন অজানা থাকলেও মিলতে পারে FHD+ ডিসপ্লে।

এছাড়াও Redmi Note 10T স্মার্ট ফোনে মিলতে পারে MediaTek Dimensity 700 processor পরিষেবা। ৫ জি সংযোগে চালু করার সঙ্গে একটি ট্রিপিল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের ব্যবস্থাও থাকবে। এই ট্রিপিল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে থাকবে একটি ৪৮ মেগাপিক্সেল মেন ক্যামেরা। সেলফি এবং ভালো ভিডিও কলের জন্য থাকবে ৮ মেগাপিক্সেল পাঞ্চ হোল কাটআউট আপফন্ট সেলফি ক্যামেরা। ৫০০০ মেগাহার্জের একটি অধিক ব্যাটারি পরিষেবা থাকলেও কত ওয়াট দ্রুত চার্জিং সমর্থন করবে তার উল্লেখ করা হয়নি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.