নয়াদিল্লি: দীর্ঘ ৭২০ কিমি রেলপথ অতিক্রম করতে লাগবে মাত্র আড়াই ঘণ্টা। যা এক্সপ্রেস ট্রেনগুলিতে লেগে যায় প্রায় দশ ঘণ্টা। সৌজন্যে বুলেট ট্রেন। এমনই অত্যাধুনিক রেল পরিষেবা চালু করতে চলেছে ভারতীয় রেল।

জাতীয় রাজধানী দিল্লি থেকে পবিত্র বারাণসী শহর যেতে সময় কমে যাবে অনেকটাই। প্রাথমিকভাবে এই দুই শহরকেই বুলেট ট্রেনের মাধ্যমে জুড়তে চাইছে ভারতীয় রেল। রেলপথে দিল্লি থেকে গঙ্গার পশ্চিম পারের শহর বারাণসীর দূরত্ব ৭২০ কিমি। বর্তমানে কমপক্ষে নয় ঘণ্টা সময় লেগে যায়। ঘণ্টায় ২৫০ কিমি বেগে যাওয়া বুলেট ট্রেনে এই দূরত্ব পার হতে সময় লাগবে মাত্র এক ঘণ্টা ৩৮ মিনিট থেকে আড়াই ঘণ্টা।

দেশে বুলেট ট্রেন চালু করতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। চলতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ১৪৭৪.৫ কিমি দিল্লি-কলকাতা হাইস্পিড করিডর নিয়ে একটি সমীক্ষা রিপোর্ট পেশ করেছে প্রকল্পের দায়িত্বের থাকা স্পেনের সংস্থা। সেই রিপোর্ট অনুসারে বুলেট ট্রেনে সফর করতে কিলোমিটার প্রতি বেশ ফেয়ার হবে ৪.৫টাকা। সেই দিল্লি থেকে বারাণসী পর্যন্ত ভাড়া হবে কমপক্ষে ১৯৮০ টাকা। যা সর্বাধিক ৩২৪০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্পেনের সংস্থাটি।

রিপোর্ট অনুসারে, ২০২৯ সালে দিল্লি-বারাণসী বুলেট ট্রেন প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। যা শেষ হতে হতে ২০৩১ সাল হয়ে যাবে। গ্রেটার নয়ডা, আলিগড়, লখনউ, সুলতানপুর এবং জানপুরের মধ্যে দিয়ে যাবে দিল্লি-বারাণসী বুলেট ট্রেন। দিল্লির অক্ষরধাম মন্দির এলাকা থেকে বারাণসীর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে এই বুলেট ট্রেন। দিল্লি-কলকাতা বুলেট ট্রেন প্রকল্প চালু করতে খরচ হবে প্রায় ১.২১ লক্ষ কোটি টাকা। এর মধ্যে দিল্লি-বারাণসী পর্যন্ত ৭২০ কিমি রেল চালাতে ৫২,৬৮০ কোটি খরচ হবে বলে উঠে এসেছে সমীক্ষায়।